ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

যশোর-নরসিংদীতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

অভ্যন্তরীণ ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০১৮, ১১:৫০ এএম

যশোর ও নরসিংদীতে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছে। নিহতরা মাদক ও হত্যা মামলার আসামি বলে পুলিশের দাবি।
যশোর ব্যুরো জানায়, যশোরের ঝিকরগাছায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ টোকন (৩২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। শনিবার ভোর পৌনে ৪টার দিকে উপজেলার কায়েমখোলা মাঠ এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। টোকন ঝিকরগাছা উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের আসলাম মাস্টারের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় হত্যা, ডাকাতি, অস্ত্র, মাদকসহ ২৭টি মামলা রয়েছে বলে পুলিশের দাবি।
ঝিকরগাছা থানার ওসি (তদন্ত) আজিজুর রহমান বলেন, শুক্রবার রাতে কোতোয়ালি থানা পুলিশের সহযোগিতায় যশোর শহর থেকে তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী টোকনকে আটক করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ভোর পৌনে ৪টার দিকে টোকনকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারের জন্য উপজেলার কায়েমখোলা মাঠ এলাকায় যায় পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে এবং টোকনকে ছাড়িয়ে নিতে তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা গুলি ও বোমা নিক্ষেপ করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা সাত রাউন্ড গুলি করলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এ সময় মাথায় গুলিবিদ্ধ হয় টোকন। পরে তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা-বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওসি (তদন্ত) আরও বলেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, এক রাউন্ড গুলি, পাঁচটি হাতবোমা উদ্ধার করা হয়েছে।
নরসিংদী থেকে স্টাফ রিপোর্টার জানান. নরসিংদীতে ডিবি পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইদ্রিস নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১টি বিদেশী পিস্তল ও ২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে নরসিংদী সদর উপজেলার মধ্য শিলমান্দী এলাকায়। ইদ্রিস ইজিবাইক ছিনতাই কারী ও হত্যা মামলার আসামী বলে দাবি করেছে পুলিশ। ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এস আই) গাফ্ফার জানান, শুক্রবার দুপুরে পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল এলাকা থেকে ইদ্রিসকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তি মতে তাকে সঙ্গে নিয়ে অভিযান চালানোর সময় নরিসংদী সদর থানার মধ্যশিলমান্দী আবদুল্লাহ ডাইং এর পাশে পৌঁছে পুলিশ। এ সময় ইদ্রিসের সহযোগিরা তাকে ছিনিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পাল্টা জবাবে পুলিশও গুলি করে। এতে সহযোগিদের গুলিতে ইদ্রিস গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। পরে পুলিশের পাল্টা আক্রমণে ইদ্রিসের সহযোগিরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে ডিবি পুলিশ। এ ঘটনায় নরসিংদী সদর মডেল থানায় আলাদা ৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান ডিবি’র এস আই গাফফার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন