ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

টেকনাফে আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা আটক

টেকনাফ উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১২:০৫ এএম

টেকনাফে দেশীয় তৈরী আগ্নেয়াস্ত্র ও চার রাউন্ড কার্তুজ ও সাত হাজার ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা ডাকাত জহির আহমদ (৩৫) কে আটক করেছে মডেল থানার পুলিশ। গতকাল ভোর রাতে পরিদশর্ক (অপারেশন) শরীফ ইবনে আলম ও উপ-পরিদশর্ক (এসআই) নাজিম, সজীব ও সুব্রতের নেতৃত্বে তাকে আটক করা হয়েছে। সে টেকনাফ নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের ই-ব্লকের ২০৫ নং রুমের হোছন আহাম্মদের ছেলে।
টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রনজিত কুমার বড়–য়া জানান, হ্নীলা লেদা ক্যাম্পের ডি ব্লকের ২০৫ নং রুমের সাহাব উদ্দীনের বসত ঘরের চলের উপর পলিথিন মোড়ানো অবস্থায় একটি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র, একটি একলনা বন্দুক, চারটি কার্তুজ ও সাত হাজার পিস ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়েছে।
ওসি আরো বলেন, গত বুধবার টেকনাফের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যা¤প পুলিশ ইনর্চাজ কবির হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ, বিজিবি ও আনসার সদস্যদের একটি যৌথ টিম হ্নীলা জাদিমুরা শালবাগান নতুন রোহিঙ্গা ক্যা¤প সংলগ্ন পাহাড়ের কাছাকাছি এলাকায় একদল ডাকাত অবস্থান করার গোপন সংবাদে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। আটক রোহিঙ্গা ডাকাত জহিরকে টেকনাফ থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে রোহিঙ্গা ডাকাত জহিরের স্বীকারোক্তিতে টেকনাফ থানা পুলিশের টিম হ্নীলা লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় অভিযান চালিয়ে আগ্নেয়াস্ত্র, কার্তুজ ও ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। ওসি রনজিত কুমার বড়–য়া বলেন, আটক ডাকাত জহির চিহ্নিত রোহিঙ্গা ডাকাত নুর আলমের সহযোগী। এই রোহিঙ্গা ডাকাত অবৈধ অস্ত্র ব্যবহার করে মাদক ব্যবসা, ডাকাতিসহ অপরাধ কর্মকাণ্ডের জড়িত ছিল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন