ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

ভোরের পথচলা থেকে বন্ধুপ্রতীম সম্পর্ক

প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কুমিল্লা থেকে সাদিক মামুন : খুব সকালবেলার তাজা শ্বাস নিতে কুমিল্লা নগরীতে বেরিয়ে পড়েন হাজারো মানুষ। কেউ একা, কেউবা দলবেঁধে হেঁটে চলেন নদীর পাড়ে, খোলামেলা রাস্তায়। তবে বেশিরভাগ মানুষের হাঁটা-চলার ঠিকানা হয়ে দাঁড়ায় নগরীর পার্ক ও ধর্মসাগর দিঘী এলাকা। সকালের এ হাঁটা-চলাকে সাধারণত প্রাতঃভ্রমণই বলা হয়। অন্যান্য সময়ের চেয়ে শীতের মৌসুমে প্রাতঃভ্রমণকারির সংখ্যাও বেড়ে যায় কয়েকগুণ। কুমিল্লায় প্রাতঃভ্রমণকারীদের নিয়ে গড়ে উঠেছেও সংগঠন। নানা পেশার বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ ভোরের শান্ত নিরিবিলি পরিবেশে হাঁটা, জগিং করতে গিয়ে হয়ে উঠছেন একে অপরের বন্ধু। প্রাতঃভ্রমণ এসব মানুষের দৈনন্দিন জীবনের স্বতঃস্ফুর্ততাকে বাড়িয়ে তোলছে। সতেজ মন, সুস্থ-সবল দেহের জন্য বেশিরভাগ মানুষ প্রতিদিন ভোরে হাঁটার জন্য বাইরে বের হন। ভোরে মানুষের হাঁটা-চলার অভ্যাস অনেক দিনের। যার দিনক্ষণ হিসেব করে বলা কঠিন। কিন্তু ভোরের এ পথচলার মধ্যদিয়ে কুমিল্লায় একে অপরের অচেনা প্রাতঃভ্রমণকারিদের মধ্যে সাংগঠনিক বন্ধুপ্রতীম সম্পর্ক গড়ে উঠেছে এমন ইতিহাসের বয়স খুব বেশিদিনের নয়। ভোরের নির্মল পরিবেশে হাঁটতে এসে বিভিন্ন বয়সী বেশিরভাগ প্রাতঃভ্রমণকারির সম্মিলন ঘটে নগরীর পার্ক ও ধর্মসাগর পাড়ে। প্রায় চৌদ্দ বছর আগে পার্ক, ধর্মসাগর, রানীরকুটির এলাকায় ভোরের পরিবেশে হাঁটা-চলা করা প্রাতঃভ্রমণকারিরা গড়ে তোলেন তাদের ঘিরে একটি সংগঠন। যার নাম আমরা তোমাদের ভুলব না। প্রায় চারশ’ সদস্য রয়েছে সংগঠনটিতে। ভোরের পথচলার মধ্যদিয়ে এসব সদস্যদের মধ্যে গড়ে উঠেছে বন্ধুপ্রতীম সম্পর্ক। প্রতিদিন খুব সকালে পৌর উদ্যানে (পার্ক) ও ধর্মসাগর পাড়ে এবং বাইরের রাস্তায় দেখা মিলবে শত শত প্রাতঃভ্রমণকারির। কেউ হাঁটছেন, কেউ আস্তে-ধীরে দৌড়াচ্ছেন। আবার অনেকে বিভিন্ন ধরনের শরীর চর্চায় ব্যস্ত। প্রাতঃভ্রমণেই এসব লোকজন খুঁজে পান সারাদিনের আনন্দ। প্রাতঃভ্রমণকারিদের ঘিরে ধর্মসাগর পাড়ে প্রতিদিন ভোর থেকেই ওজন, ডায়াবেটিস, প্রেসার মাপার যন্ত্র নিয়ে বসেন গ্রাম্য চিকিৎসকরা। আবার ভেষজ ওষুধের দোকানিরাও পসরা সাজিয়ে বসেন। প্রতিদিনের কাজের চাপ, নানা টেনশন, অসুস্থতার থাবা জীবনকে বিষিয়ে তুলছে। এতোসবের মাঝেও একটু হাঁটার অভ্যাস বদলে দিতে পারে জীবনযাত্রার মান। আর এনিয়ে কুমিল্লার বিশিষ্ট হৃদরোগ চিকিৎসক ড. তৃপ্তিশ চন্দ্র ঘোষের পরামর্শ প্রতিদিন অন্তত ৪০মিনিট হাঁটার অভ্যাস চালু করতে পারলে কমিয়ে আনতে পারে অতিরিক্ত মাত্রায় বেড়ে যাওয়া ওজনকে। ঠিক রাখতে পারে শরীরের কোলেস্টেরলের মাত্রা। এমনকি হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা কমিয়ে, দিতে পারে এক সুস্থ সবল জীবন। প্রাতঃভ্রমণকারিদের সংগঠন আমরা তোমাদের ভুলবনা’র সভাপতি আলহাজ্ব ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘খুব সকালে নিজেদের প্রয়োজনে হাঁটতে বেরিয়ে এসে আমরা একে অপরের সাথে পরিচিতি হয়েছি। গড়ে উঠেছে বন্ধুত্বের নিবিড় সম্পর্ক। আর এ সম্পর্ক পরিণত হয়েছে একটি সংগঠনে। ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে সংগঠনের নামকরণ হয়েছে আমরা তোমাদের ভুলবনা। সংগঠনের লক্ষ্য একটাই, আর্তমানবতার সেবা করা আর নিজেদের নির্মল বিনোদনের জায়গাটি ধরে রাখা। সবমিলে ভোরের এ পথচলা প্রাতঃভ্রমণকারিদের আপনজনে পরিণত করেছে’।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন