ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

জামায়াতের আমীর গোলাম আযমের আত্মীয় আ.লীগের প্রার্থী

নবীনগরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৪:১৭ পিএম

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে তৃনমূলের মতামতকে উপেক্ষা করে জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ’র প্রয়াত আমীর গোলাম আযমের নিকট আত্মীয়কে আ.লীগের প্রার্থী করায় সংবাদ সম্মেলন করেছে আ’লীগের বঞ্চিত প্রার্থীরা। গতকাল শনিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মনোনয়ন প্রত্যাশী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবলীগে সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম ফেরদৌস। তিনি লিখিত বক্তব্য বলেন, আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে তৃনমূলের মতামতকে উপেক্ষা করে কুখ্যাত রাজাকার গোলাম আযমের নিকট আত্মীয় হাবিবুর রহমান স্টিফেনকে দলীয় প্রার্থী করতে মনোনয়ন দিয়েছে উপজেলা আ.লীগ। হাবিবুর রহমান স্টিফেন নবীনগরের বীরগাঁও গ্রামের সোনা মিয়া সরকারের ছেলে ও আমেরিকা প্রবাসী দ্বৈত ধর্মের অধিকারী বিতর্কিত ব্যক্তি। আ.লীগ থেকে নবীনগর উপজেলা নির্বাচন করতে মনোনয়ন ক্রয় করেছেন ৮ জন প্রার্থী। দলীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ হালিমের প্ররোচনায় ও কৌশলে এই কাজটি করা হয়েছে।
তিনি আরো বলা হয়, হাবিবুর রহমান সরকার স্টিফেন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা হওয়ায় তার নাম মুক্তিযোদ্ধা তালিকা থেকে বাতিল করতে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে স্থানীয় বীরগাঁও ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের পক্ষে মুক্তিযোদ্ধা মো. সামছুল আলম থেকে আবেদন জানিয়ে ছিলেন। বীরগাঁও গ্রামে গোলাম আযম প্রতিষ্ঠিত সোবহানিয়া দাখিল মাদ্রাসা পরিচালনা করেন হাবিবুর রহমান স্টিফেন। আগে গত ২৮ জানুয়ারি নবীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় তিনজন প্রার্থী চূড়ান্ত করার দায়িত্ব ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ (নবীনগর) আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিমকে দেয় দলীয় নেতাকর্মীরা। পরে নবীনগর উপজেলা আ’লীগের সহসভাপতি হাবিবুর রহমান স্টিফেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা জালাল ও জেলা আ.লীগের সদস্য শাহরিয়ার বাদলের নাম দলীয় মনোনয়নের জন্য কেন্দ্রে পাঠানোর সিদ্ধান্ত দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য এবাদুল করিম। তবে হঠাৎ করে সাংসদ এবাদুল করিম দলের একক প্রার্থী হিসেবে হাবিবুর রহমান স্টিফিনের নাম কেন্দ্রে পাঠাতে বলেন।
এই মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীরা স্টিফিনকে বাদ দিয়ে দলের ত্যাগী যে কোন নেতাকে দলের মনোনয়ন দিলে কারো কোন আপত্তি থাকবে না। অন্য যে কোন একজনকে মনোনয়ন দিলে আমরা সকলেই তার জন্য কাজ করব।
সংবাদ সম্মেলনে নবীনগর উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগরে মনোনয়ন প্রত্যাশী ও কেন্দ্রীয় আ’লীগের উপ কমিটির সহ-সম্পাদক কাজী জহির উদ্দিন টিটো, কেন্দ্রীয় উপ কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এইচএম আল আমীন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
তবে এই ব্যাপারে নবীনগর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এম.এ হালিম জানান ওনাকে (হাবিবুর রহমান স্টিফেন) নিয়ে বিতর্কের তো কোনো কারণ দেখছি না। যেহেতু হাবিবুর রহমান নিজে রাজাকার বা জামায়াতের লোক নন তাই নৌকা প্রতীক পেলে অমুক্তিযোদ্ধা/মুক্তিযোদ্ধা কোনো ব্যাপার না বলে জানান তিনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন