ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১০ সফর ১৪৪২ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

প্রাণ ভয়ে বাড়িছাড়া অসহায় পরিবার মামলা করায় কিশোরীকে এসিড নিক্ষেপ ও প্রাণনাশের হুমকি

প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বানারীপাড়া (বরিশাল) উপজেলা সংবাদদাতা

বানারীপাড়ায় বখাটের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা দায়ের করায় ৮ম শ্রেণীর এক মেধাবী শিক্ষার্থীর লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। ওই শিক্ষার্থীকে এসিডে ঝলসে দেওয়ার হুমকি দেওয়ায় তার বিপন্ন পরিবার বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন। এসিড সন্ত্রাসের হাত থেকে বাঁচতে ওই শিক্ষার্থী স্কুলে যেতে না পারায় তার লেখাপড়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। মানসিকভাবে বিপর্যস্ত মেয়ের বিপন্ন জীবন নিয়ে উদ্বিগ্ন তার বাবা-মা ও স্বজনরা। এ ব্যাপারে পুলিশের কাছ থেকে আশানুরূপ সহায়তা না পেয়ে ওই শিক্ষার্থীর মা ময়না বেগম গত শনিবার বরিশাল র‌্যাব-৮ এর কমান্ডিং অফিসারের কাছে আইনী সহায়তা চেয়ে লিখিত আবেদন করেছেন। জানা গেছে, বানারীপাড়ার গাভা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর মেধাবী শিক্ষার্থীকে  গত বছরের ৩০ জুলাই বিকেলে স্কুলের ক্লাস শেষে বাড়ি ফেরার পথে রাজ্জাকপুর গ্রামের বাদশা বেপারীর ছেলে বখাটে রাজু বেপারী পথ রোধ করে যৌন কামনা চরিতার্থ করা অসৎ উদ্দেশ্যে ওড়না ধরে টান দেয়। এসময় ওই শিক্ষার্থীর চিৎকারে তার সহপাঠীরা এগিয়ে এসে তাকে রক্ষা করে। বিষয়টি জানতে পেরে ওই শিক্ষার্থীর বাবা বখাটে রাজুদের বাড়িতে গিয়ে তার বাবা বাদশা বেপারী ও ভাই শামীম বেপারীর কাছে ওই ঘটনার বিচার দাবি করলে উল্টো তারা তাকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। সমাজপতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে এর কোন প্রতিকার না পেয়ে ৫ আগস্ট বানারীপাড়া থানায় এ ব্যাপারে রাজু  বেপারী, তার বাবা বাদশা বেপারী ও ভাই শামীম বেপারীকে আসামি করে শিশু ও নারী নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে। সেই থেকে মামলা তুলে নিতে ওই শিক্ষার্থীর মুখ এসিডে ঝলসে দেওয়া ও প্রাণনাশসহ তার পরিবারকে নানা ভাবে হুমকি-ধামকি দেওয়া হচ্ছে। আসামিদের অব্যাহত হুমকির ফলে জীবন বাঁচাতে পাশের গ্রামে ওই শিক্ষার্থীর নানার বাড়িতে তারা সপরিবারে আশ্রয় নিয়েছেন। এসব হুমকির ব্যপারে বানারীপাড়া থানায় একাধিক সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। ওয়ারেন্টভূক্ত ওই আসামিদের গ্রেফতারে অজ্ঞাত কারণে পুলিশের বিরুদ্ধে নির্লিপ্ততার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ আসামিদের গ্রেফতার না করার কারণে তারা র‌্যাবের শরণাপন্ন হয়েছেন বলে লিখিত ওই আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। এ অভিযোগ অস্বীকার করে ওসি জিয়াউল আহসান জানান, ওই মামলার চার্জশিট দেওয়াসহ সর্বাত্মক আইনী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। হুমকির ব্যপারে তার কাছে বাদীর পক্ষ থেকে কিছুই জানানো হয়নি বলে তিনি দাবী করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন