ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

খেলাধুলা

‘মেসি-রোনালদো দ্বৈরথ ফেদেরার-নাদালের মতো’

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ মে, ২০১৯, ১২:০৮ এএম

চ্যাম্পিয়নস লিগে লিভারপুলের বিপক্ষে জোড়া গোল করে ক্লাব ক্যারিয়ারে ৬০০তম গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন লিওনেল মেসি। বুধবার রাতে আর্জেন্টাইন তারকা গোলসংখ্যায় ধরে ফেলেন প্রতিদ্ব›দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে। একদিন পরই পর্তুগিজ তারকা তাকে পেছনে ফেলে দিয়েছেন তরিনোর বিপক্ষে লক্ষ্যভেদ করে। সময়ের সেরা দুই ফুটবলারের দ্বৈরথকে টেনিসের দুই কিংবদন্তি রজার ফেদেরার ও রাফায়েল নাদালের সঙ্গে তুলনা করেছেন জুভেন্টাস ডিফেন্ডার জর্জিও কিয়েল্লিনি। শুধু তাই নয়, জুভেন্টাস অধিনায়ক নিজেকে সৌভগ্যবান মনে করছেন, ‘তাদের সময়ে জন্ম নিয়ে।’
রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে যাওয়ায় মেসির সঙ্গে দ্বৈরথটা আগের মতো আর নেই। তবে গোলসংখ্যায় তাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা তো থামার নয়। ক্লাব ক্যারিয়ারে ৬০০তম গোল পূরণ করেছিলেন সাবেক রিয়াল তারকা আগেই। সামান্য পিছিয়ে থাকা মেসি লিভারপুলের বিপক্ষে সেমিফাইনালের প্রথম লেগে জোড়া লক্ষ্যভেদ করে স্পর্শ করেছেন মাইলফলকটি।
টেনিস ইতিহাসের অন্যতম সেরা দুই তারকাতাদের এই দ্বৈরথকে টেনিসের ফেদেরার ও নাদালের সঙ্গে তুলনা করেছেন কিয়েল্লিনি। গ্র্যান্ড স্ল্যাম সংখ্যায় ফেদেরার এগিয়ে থামলেও তার ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছেন নাদাল। ফেদেরারের ২০ শিরোপার বিপরীতে নাদালের গ্র্যান্ড স্ল্যাম সংখ্যা ১৭। স্কাই ইতালিয়ায় জুভেন্টাস ডিফেন্ডার বলেছেন, ‘আমরা ভাগ্যবান, কারণ মেসি ও রোনালদোর সময়ে আমরা বাস করছি।’ সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘আমরা তাদের ফেদেরার ও নাদালের সঙ্গে তুলনা করতে পারি। আজ যদি ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী (ফুটবলার) হয়, তো পরের দিনই হবে মেসি। তবে সত্য হলো, ওরা দুজন একেবারে অন্য ধাঁচের, যারা এই খেলাটি অন্য মাত্রায় নিয়ে গেছে।’
শুক্রবার রাতে তোরিনোর বিপক্ষে গোল করে জুভেন্টাসকে রক্ষা করেছেন রোনালদো। পিছিয়ে পড়া ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা শেষ মুহূর্তে ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পর্তুগিজ উইঙ্গারের সৌজন্যে। আর ওই গোলটাকেই ক্লাব ক্যারিয়ারে রোনালদোর তার গোলসংখ্যা নিয়ে গেছেন ৬০১-এ।
ঘরের মাঠে আর্জেন্টাইন তারকার এমন ঝলমলে পারফরম্যান্সের পর তার প্রশংসায় মেতেছেন হোসে মরিনহো। ম্যাচের পারফরম্যান্স বিশ্লেষণ করতে গিয়ে মেসিকে ফুটবল ঈশ্বর বললেন রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রাক্তন এ কোচ।
দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনাকে আটকে রাখতে চেয়েছিল লিভারপুল। এছাড়া প্রতিপক্ষ শিবিরের সেরা তারকা মেসিকে রুখে দিতে সব ধরনের পরিকল্পনাও ছিল অলরেডসদের। তবে সফরকারীদের সব পরিকল্পনা ব্যর্থ করে দলকে জয় উপহার দিয়েছেন মেসি। ইউরোপ সেরার মঞ্চে জোড়া গোল করে বার্সেলোনার হয়ে ৬০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন তিনি। এমন পারফরম্যান্সের পর রাশিয়া টুডেকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে সময়ের সেরা এ তারকার প্রশংসায় মরিনহো, ‘ওই ফুটবল ঈশ্বর এটা সম্পূর্ন ভিন্নভাবে করেছিলেন। এটা ছিল একেবারে অবিশ্বাস্য। আমি মনে করি সেই ফলটা তৈরি করে দিয়েছিল। নিজেদের ধরন নিয়ে লিভারপুলও সাহসী ছিল। আমি মনে করি না চ্যাম্পিয়নস লিগে ন্যু কাম্পে খুব বেশি দল প্রভাব বিস্তার করতে পেরেছিল। লিভারপুল খুব সাহসী ছিল। তারা তিনটি বড় সুযোগ মিস করেছিল। লিভারপুল ৩-০ ফলাফলের চেয়েও বেশি প্রাপ্য ছিল। তবে আমরা এটাও বলতে পারি এটা ৪-০ কিংবা ৫-০তেও শেষ হতে পারত।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন