ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

আয়ারল্যান্ডের ‘টার্গেট’ বাংলাদেশ!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম


আয়ারল্যান্ডের দ্বিতীয় সারির দলের কাছে প্রস্তুতি ম্যাচ হেরে অস্বস্তি বাড়িয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু পুরোশক্তি নিয়ে মূল আসরে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দেখা গেল না তার ছিটেফোঁটা। বোলিংয়ে সম্মিলিত প্রয়াসে দেখা গেল ধারালো আক্রমণ। মাঝারি লক্ষ্য তাড়াতেও ‘সবে মিলে করি কাজ’ থিউরিতে প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে দিয়ে দাপট দেখাল মাশরাফি মুর্তজার দল। দেশে তীব্র গরম থেকে আয়ারল্যান্ডে প্রচÐ শীতে কাবু হয়ে পড়ে দল মাঠের খেলায় সব ঝেড়ে দেখাল নিজেদের শক্তি।

ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ উইকেটে ৩৮১ রানের পাহাড় গড়েছে, আইরিশদের ফুঁ দিয়ে উড়িয়ে দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। একই দিনে প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে মাশরাফিরা কেমন করেন, সেটি নিয়ে একটু যেন সংশয় দেখা দিয়েছিল। ডাবলিনে সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাত্তাই পেল না বাংলাদেশের কাছে। ক্যারিবীয়দের ৮ উইকেটে হারিয়ে মাশরাফিরা বুঝিয়ে দিলেন, মূল মঞ্চে তাঁরা অন্য রকম। এই দলটির বিপক্ষেই আজ নিজেদের প্রথম পয়েন্টের আশা দেখছে আয়ারল্যান্ড! তবে বাংলাদেশও জানে, ঘরের মাঠে আহত বাঘ কতটা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। সেই সূত্রধরেই আইরিশদের হাল্কাভাবে নিচ্ছে না মাশরাফির দল।
প্রস্তুতি ম্যাচে কেবল সাকিবই দেখিয়েছিলেন ব্যাটে-বলে দ্যুতি। কিন্তু আসল ম্যাচে এসেই বল হাতে জ্বলে উঠলেন মাশরাফি, সাইফউদ্দিনও দিলেন আস্থার প্রতিদান, পেসারদের স্বর্গরাজ্যে মিরাজও দেখালেন ঘূর্ণির কারিশমা। পরে ব্যাট হাতে ঝড় তুললেন রানের ধারাবাহিকতায় থাকা সৌম্য সরকার, তামিমও ফিরে পেলেন নিজেকে, সাকিবও খেললেন পঞ্চাশোর্ধ ইনিংস।

আগের ম্যাচে ইতিহাসগড়া প্রথম উইকেটে জুটিতে আইরিশদের উড়িয়ে দেয়া ক্যারিবিয়ানরা পরের ম্যাচেই মুখ থুবড়ে পরে বলতে গেলে জয়ের ভিত্তি বলতে গেলে গড়ে দিয়েছিলেন বাংলাদেশি বোলাররাই। যাতে শেই হোপের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে উড়ন্ত শুরুর পরও শেষ ৭ উইকেট হারাতে হয়েছিল মাত্র ৫৬ রানে। বিশেষ করে শেষ স্পেলে মাশরাফি দিয়েছিলেন গুরুত্বপূর্ণ উইকেট, মাঝে রানের রাশ টেনে ধরেছিলেন সাকিব আর মিরাজ। আর ১৪৪ রানের সৌম্য-তামিমের রেকর্ডগড়া ওপেনিং জুটির পর সাকিবের দায়িত্বশীল ফিফটির ইনিংসে ২৬২ রানের ম্যাচটি ৮ উইকেটে জেতে সফরকারীরা।

বোলারদের সমীক্ষা হয়ে গেছে উইন্ডিজ ম্যাচেই। বাকি রয়ে গেছে ব্যাটিং শক্তি পরীক্ষার। মূল ম্যাচে এখনও যেখানে ব্যাট করার সুযোগ হয়নি পরীক্ষিত মোহাম্মদ মিঠুনের, লাইন আপে আছেন অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, ঝড় তুলতে পারদর্শী সাব্বির রহমান, পেস অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন, সময়ে ঘর তুলতে সিদ্ধহস্ত মাশরাফি মুর্তজা, এমনকি প্রয়োজনে ব্যাট হাতে দলকে স্বস্তি দিতে পারেন মেহেদি মিরাজও। তবে আজকের ম্যাচে আরেকবার বোরারদের দিকেই তাকিয়ে থাকবে বাংলাদেশ। অপেক্ষা আরেকটি সমন্বিত প্রয়াসের, যেখানে দ্যুতি ছড়াবেন মুস্তাফিজুর রহমানও। যার উপর ভরসা করে বহু ম্যাচ জয়ের সাক্ষী হয়েছে ইনজুরি কাটিয়ে ফেরার পর সেই কাটার মাস্টার এখনও দেখাতে পারেন নি নিজের কারিশমা। গত ম্যাচেও ছিলেন সবচেয়ে ব্যয়বহুল। ২টি উইকেট নিলেও ১০ ওভারে রান দিয়েছেন ৮৪! আগের ম্যাচেও ছিলেন খরুচে, রান দিয়েছেন ৯৩।

বিশ্বকাপের মত আসরের আগে নিজেকে ফিরে পেতে আজ তাই বিশেস কিছুই করে দেখাতে মুখিয়ে থাকবে মুস্তাফিজও। আর সেটি হলে উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড, পল স্টার্লিংয়ের বড় পরীক্ষা। বিশেষকরে যদি কোন অঘটন না ঘটে তবে টানা ৬১ ম্যাচ খেলতে নামবেন এই দুই অভিজ্ঞ আইরিশ সেনানী। যারমধ্যে ৫ বছর আগে সবশেষ আয়াল্যান্ডের হয়ে ম্যাচ মিস করা পোর্টারফিল্ড আবার সবগুলো ম্যাচে নেতৃত্বও দিয়েছেন! এমন দিনে নিজেদের সেরাটা উজার করে খেললে সেরা একটি ম্যাচই হতে যাচ্ছে ম্যালাহাইডে। যেখানে দুই বছর আগে খেলা শেষ ম্যাচটিতে জয়ের সুখস্মৃতি আছে বাংলাদেশেরও।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
Saif ৯ মে, ২০১৯, ২:০০ এএম says : 0
এমন মাথা ঠাণ্ডা ইনিংস বাংলাদেশ কবে খেলেছে তা বের করতে কমপক্ষে ১ দশকের পঞ্জিকা খুঁজতে হবে । আর এমন ইনিংস যদি পুরো বিশকাপ জুড়ে থাকে তবে পৃথিবীর সাধ্য নাই বাংলাদেশকে ঠেকায়। এখনো মনে শঙ্কা, কারন তামিম এর ঠাণ্ডা মাথার লম্বা ইনিংস, মাশরাফির ধারাবাহিক "জিততেই হবে" মনোভাব বিশকাপে বজায় থাকবে তো ?? সাকিব তো সাকিবই, মুশফিক এই ছেলেটি সত্যিকার অর্থেই "বাংলা ওয়াল " টাইটেল ধারণ করতে পারে। আর সৌম্য... তোমার ব্যাটিং আমি খাই-পরি-অবগাহন করি, প্লিজ ধারাবাহিক হও। তোমার ব্যাটিং আমার কাছে শিল্পী শাহাবুদ্দিনের চিত্রকর্ম মনে হয়।
Total Reply(0)
Mohammed Sarwar Alam ৯ মে, ২০১৯, ২:০০ এএম says : 0
টানা তিন ইনিংসে ৩৪৯ এর চাইতেও বেশী মূল্যবান একটি হাফ সেঞ্চুরী?
Total Reply(0)
MD Abu Bakkar Siddik ৯ মে, ২০১৯, ২:০১ এএম says : 0
Good Luck BD
Total Reply(0)
Md. Azizul Islam ৯ মে, ২০১৯, ২:০১ এএম says : 0
Show your attitude like Shakib al Hasan..Just don’t care those critics..Everybody wants success but doesn’t want to sacrifice. You are a very good talent.
Total Reply(0)
সাদ্দাম ৯ মে, ২০১৯, ১০:০৫ এএম says : 0
শুভ কামনা রইলো বাংলাদেশ দলের জন্য
Total Reply(0)
নাসির, রাঙ্গুনিয়া, চিটাগাং। ৯ মে, ২০১৯, ৩:৪৩ এএম says : 0
এক সময় সাঙ্ঘাতিক ক্রিকেট ভক্ত ছিলাম,কিন্তু ক্রিকেট এখন আর কাছে টানে না। হারজিত সবক্ষেত্রেই কেন জানি এক্সাইটিং লেস। তারপরও মাঝেমধ্যে অনলাইনে খোজ রাখি। শুভকামনা ক্রিকেট বাংলাদেশ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন