ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

চন্দ্রগঞ্জে যুবলীগ-ছাত্রলীগের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ১৩

লক্ষীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

লক্ষীপুরে চন্দ্রগঞ্জে আ.লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সভায় শ্লোগান দেয়াকে কেন্দ্র করে যুবলীগ-ছাত্রলীগের দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে পুলিশসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১৩ জন নেতাকর্মী আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ১১টায় সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জে আ.লীগের প্রতিষ্ঠাবার্র্ষিকীর আলোচনা সভায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে বলে জানিয়েছেন চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম আজাদ।

পুলিশ ও দলীয় নেতাকর্মীরা জানায়, আ.লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন আ.লীগ র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে। সকালে জেলা আ.লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু ও সাধারন সম্পাদক এডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের নেতৃত্বে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালি শেষে আলোচনা সভায় জেলা আ.লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের উপস্থিতিতে শ্লোগান দেয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীর সাথে যুবলীগের নেতাকর্মীদের কথাকটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উত্তেজিত নেতাকর্মীরা সভামঞ্চের চেয়ার ছুড়াছুড়ি করে। এসময় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এতে কফিল উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নিশান, ছাত্রলীগ নেতা সোহেল হোসেন, রাজু, মামুন হোসেন.ফিরোজ আলম ও যুবলীগ নেতা আবদুর রেজ্জাক রিংকু, তাজু ভূইয়া, রোমেল, সৌরভ হোসেন, পারভেজ ও পুলিশের এসআই সোহেল মিয়াসহ ১৩ জন। এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা একে অপরকে দায়ী করছে।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের এ ঘটনা ঘটে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন