ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

মুসলমানদের সাথে ভারতের আচরণে যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা

‘আমরা সংখ্যাগরিষ্ঠ, আমরা যা বলব তাই হবে’

দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মুসলমানদের সাথে আচরণের জন্য ভারতের নিন্দা করেছে। মার্কিন সরকার বলেছে, ভারতে মুসলিম বিরোধী সহিংসতা চলছে। আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা (ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডম) বিষয়ক বার্ষিক প্রতিবেদনে এ নিন্দা করা হয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের এ প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে গত বছরের সালের গোটা সময়েই ভারতে উচ্ছৃঙ্খল জনতার হামলার ঘটনা ঘটেছে এবং সহিংসতায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারীদের সম্পৃক্ততার অভিযোগ রয়েছে। এতে বলা হয়, সহিংস উগ্রপন্থী হিন্দু গ্রুপগুলো কর্তৃক দেশের সংখ্যালঘু, বিশেষ করে মুসলমানদের বিরুদ্ধে সারা বছরই হামলা চালিয়েছে। মুসলমানরা গোশতের জন্য গরু বিক্রি বা হত্যা করেছে এ অভিযোগে উচ্ছৃঙ্খল উগ্রপন্থী জনতা তাদের উপর হামলা চালায়।
প্রতিবেদনে বলা হয়, কর্তৃপক্ষ প্রায়শই হামলাকারীদের বিচারের আওতায় আনা থেকে রক্ষা করেছে। এমনকি হামলায় আইনপ্রয়োগকারী লোকদের অংশগ্রহণেরও অভিযোগ আছে। এতে বলা হয়, ভারতে ধর্মীয় উন্মাদনা তাড়িত হয়ে হত্যা, হামলা, দাঙ্গা, বৈষম্য, গুন্ডামি এবং কারো ধর্মপালনের ব্যক্তিগত অধিকারে বাধা প্রদানের খবর পাওয়া গেছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে ভারতের মুসলিম ও খ্রিস্টানদের প্রান্তিকীকরণের দীর্ঘদিনের অভিযোগ রয়েছে।

উল্লেখ্য, নরেন্দ্র মোদিকে ঘিরে বিতর্ক থাকা সত্তে¡ও চলতি বছরের মে মাসে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় দফা নির্বাচনে ৬৮ বছর বয়স্ক এই নেতা বিজয়ী হয়েছেন।
ভারতের হিন্দু জাতীয়তাবাদী ঘাঁটিতে বিজেপির নেতৃত্বদাতা নরেন্দ্র মোদির শক্তিশালী সমর্থন রয়েছে। কিন্তু ভারতের ১৮ কোটি মুসলমানের এক বড় অংশই তাকে শঙ্কার চোখে দেখেন।

মার্কিন রিপোর্টে উল্লেখ করা হয় যে সিনিয়র বিজেপি কর্মকর্তারা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়গুলোর বিরুদ্ধে উত্তেজনা সৃষ্টিকারী বক্তৃতা করে চলেছেন। এই প্রতিবেদনে গত বছরের জানুয়ারিতে জম্মু ও কাশ্মীরে ৮ বছর বয়স্কা আসফিয়া বানু ধর্ষণ ও হত্যার বিষয়েও আলোচনা করা হয়েছে। তার মৃত্যুর সাথে পুলিশ কর্মকর্তাদেরও জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। এ ঘটনায় দেশব্যাপী ব্যাপক প্রতিবাদ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আসফিয়াকে অপহরণ, গণধর্ষণ ও হত্যার জন্য পুলিশ তাদের বাহিনীর ৪ সদস্যসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে। অভিযোগে বলা হয়, অভিযুক্ত অপহরণকারী শিশুটিকে অপহরণ করে নিকটবর্তী একটি মন্দিরে নিয়ে যায় এবং তাকে ধর্ষণ ও হত্যা করা হয়। তাদের যাযাবর মুসলমান সম্প্রদায়কে ওই এলাকা থেকে বিতাড়িত করার জন্যই এ ঘটনা ঘটানো হয়।

মোদির প্রশাসনিক নীতির মধ্যে রয়েছে মুসলমান প্রভাব মন্ডিত শহরগুলোর নাম পরিবর্তন করার পদক্ষেপ। এক্ষেত্রে সবিশেষ উল্লেখখযোগ্য আল্লাহাবাদকে (এলাহাবাদ) প্রয়াগরাজ করা। অধিকার কর্মীরা বলছেন, এসব পরিকল্পনা হচ্ছে ভারতের ইতিহাস থেকে মুসলমানদের অবদানকে মুছে ফেলা যা ক্রমবর্ধমান সাম্প্রদায়িক উত্তেজনার সৃষ্টি করছে।

মোদি সরকার গত রোববার মার্কিন সরকারের এ রিপোর্ট খারিজ করে। ভারত সরকারের একজন মুখপাত্র বলেন, ভারত তার ধর্মনিরপেক্ষ পরিচয়, বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশের মর্যাদা ও একটি বহুত্ববাদী সমাজের সাথে সহিষ্ণুতা, অন্তর্ভুক্তির দীর্ঘকালীন অঙ্গীকার নিয়ে গর্বিত। ভারতের নাগরিকদের সাংবিধানিক ভাবে সুরক্ষিত অধিকার নিয়ে কোনো বিদেশি সরকার বা সংস্থার মন্তব্য করার অধিকার আমরা দেখি না।
নির্বাচনে মোদির দ্বিতীয় বিজয় নিয়ে আলোচনা প্রসঙ্গে রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অজয় মেহরা বলেন, তারা এখন সংখ্যালঘুদের এ কথা বলতে সক্ষম হবে যে আমরা সংখ্যাগরিষ্ঠ, আমরা যা বলব তাই হবে।

তিনি বলেন, তারা যদি বলে কারোর গরুর গোশত খাওয়া উচিত নয় তাহলে কেউ তা খাবে না। যদি তারা বলে যে কোনো গরু জবাই করা যাবে না, তবে তাই হবে। তারা যদি বলে যে সব শহরের মুসলিম নাম আছে তা পাল্টানো হবে, তাহলে তাই হবে।

এদিকে ভারতের সাথে বৃহত্তর কৌশলগত সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও আজ মঙ্গলবার ভারত সফরে আসছেন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Billal Hossain ২৫ জুন, ২০১৯, ১১:১৭ এএম says : 0
আল্লাহ তুমি মুসলমানদের রক্ষা কর। আমিন
Total Reply(0)
Taniya Ahmed ২৫ জুন, ২০১৯, ১১:২১ এএম says : 0
Allah'r gojob poruk .. Inshaa Allah aitar sashti Allah e deben oder ka ..
Total Reply(0)
Sakib Al Hasan ২৫ জুন, ২০১৯, ১১:২০ এএম says : 0
আল্লাহ্‌ জালিমদের ধ্বংস করে দেও
Total Reply(0)
Skm Wazeh Ullah Wazeh ২৫ জুন, ২০১৯, ১:৫৫ পিএম says : 0
তাজেদারে বাংলাদেশ, শাহেন শাহে আলম, ওয়াজীহিয়া মোহাম্মদীয়া ত্বরীক্বাহর ইমাম ওয়ালী-ই-মাদারজাদ মুরশেদ-ই-কামেলে মুকাম্মাল সাইয়্যেদুল আউলিয়া ওয়াল আইম্মাহ-ই-তরীকাত ওয়াল মাজাহিবীন মুরশিদ-ই-আযম শামসুল আরেফীন নকশা-ই-নবী সাইয়্যেদিনা হাবীবিনা মুরশেদুনা আরশাদে আওলাদিহীশ শায়খ সাইয়্যিদ খাজা আবুল খায়ের মোহাম্মাদ ওয়াজীহ উল্লাহ (رضى الله عنه) এর (১১ জিলকদ বিলাদাত দিবস ওয়াজীহ দিবস)ঈদ-ই-মীলাদুল ওয়াজীহ উপলক্ষে এক ঐতিহাসিক আজিমুস শান, শাহেন শাহে শান্দার, নুরানী, শাহী মাহফিল (সম্ভবত ১১ জিলকদ ১৪৪০ হিজরী, ৩১ আষাঢ় ১৪২৬বাংলা, ১৫ই জুলাই ২০১৯ইং রোজ সোমবার দিবাগত রজনী)
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন