ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আইসিটি এন্ড ক্যারিয়ার

ভারতের হারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে প্রতিক্রিয়া

আবদুল মোমিন | প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০১৯, ৯:৫২ পিএম

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে দুর্দান্ত এক সেমিফাইনাল দেখলো ক্রিকেট বিশ্ব। শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারতকে সেমিফাইনালেই আটকে রাখল নিউজিল্যান্ড। ২৪০ রানের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমে ২২১ রানেই গুটিয়ে যায় ভারতীয় ইনিংস। বুক চিতিয়ে লড়াই করেও দেশকে ফাইনালে তুলতে পারেননি রবীন্দ্র জাদেজা এবং মাহেন্দ্র সিং ধোনি। ওল্ড ট্রাফোর্ডে প্রথম সেমিফাইনালে শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হারে ভারত। আর ম্যাট হেনরি ও ট্রেন্ট বোল্টের বোলিং নৈপুণ্যে আবারও ফাইনালে নিউজিল্যান্ড।

এদিকে ভারতের পরাজয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। ম্যাচ শেষের সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয়েছে স্ট্যাটাস ও কমেন্ট ঝড়। বেশিরভাগই ভারতের হারে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন। কারণ হিসেবে দিচ্ছেন নানা ব্যাখ্যা। তবে জাদেজা এবং ধোনির ব্যাটিং নৈপুণ্যতার প্রশংসা করতেও ভোলেননি ভক্তরা।

ভারতের হারের প্রতিক্রিয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিস্ট ও গবেষক মেহেদী হাসান পলাশ লিখেছেন, ‘‘ইংল্যান্ডের কাছে ইচ্ছাকৃত হেরে অপরাজেয় ভারত পরাজয়ের গর্তে পড়েছে!’’

‘‘অহংকার পতনের কারণ! মহান আল্লাহ, ইন্ডিয়া ভারত আইসিসি আম্পায়ার সকলকে এ শোক সইবার শক্তি দান করুন! আমীন!!’’ লিখেছেন শামাউন ইকবাল শামুন।

বিশ্বকাপে প্রথম ফাইনালে যাওয়া দল নিউজিল্যান্ডকে অভিনন্দন জানিয়ে দীপ্ত লিখেছেন, ‘‘আলহামদুলিল্লাহ, ভারত এর অহংকার চূর্ণ করার জন্য নিউজিল্যান্ডকে অনেক অনেক ভালবাসা ও শুভেচ্ছা।’’

‘‘এটা ওদের পাওনা এবং অবধারিত ছিল,,যে রান নিউজিল্যান্ড করেছে তা ইন্ডিয়ার প্রথম জুটিতেই শেষ হওয়ার মত,,কিন্ত ঐ যে একটা কথা আছে না, হিংসার পরিণাম সুখের নয়’’ মন্তব্য শাহরিয়ার জাফরের।

হাবিব লিখেছেন, ‘‘না এটা আমি মেনে নিতে পারছিনা!যারা পাকিস্তান বাংলাদেশকে বিদায় করে নিজেরা কাপ নিব বলে ভাবছিল!ইচ্ছে করে যারা ইংল্যান্ডের সাথে হারল! তারা কি করে বিশ্বকাপ থেকে বাদ যায়!না এটা অামি কখনোই মানতে পারতেছিনা!!’’

এনামুল কায়েস সজল লিখেছেন, ‘‘ঈদে এত আনন্দ পাই নাই। কারণ ঘুমিয়ে ছিলাম সেহেরি খেতে উঠে শুনি কাল ঈদ। আজ জেগে আছি,তাই মনে হচ্ছে আজ ঈদের দিন। কেন জানি ঈদ ঈদ লাগতেছে।’’

‘‘প্রতিহিংসার ফলাফল এমনই হয়। সেদিন ইংল্যান্ড এর সাথে ধোনি ইচ্ছে করে মারেনি। আজ ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও মারতে পারেনি। সমস্ত অহংকার এই পরাজয়ের মাধ্যমে অবসান ঘটলো। অভিনন্দন নিউজিল্যান্ড দলকে দ্বিতীয়বারের মত বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলার যোগত্য অর্জনের জন্য।’’ লিখেছেন হাবিবুর রহমান।

সামিক কানজিলাল লিখেছেন, ‘‘জীবনযুদ্ধে যারা পরাজিত, সফল লোকজনের সাময়িক ব্যর্থতাই তাদের বাঁচিয়ে রাখে- এই সত্যটা বুঝা যায় এখানে লোকজনের ঈদ পালনের নমুনা দেখলে।’’

খন্দকার মোমিন লিখেছেন, ‘‘অভিনন্দন নিউজিল্যান্ড। তবে ধনি ও জাদেজার আশা জাগানিয়া ব্যাটিং দর্শক অনেকদিন মনে রাখবে।’’

‘‘ব্যাটিং নামানো ভূল ছিল ৷৷ পান্ডিয়ার জায়গায় ধোণিকে দরকার ছিল ৷৷ হিটার পান্ডিয়াকে শেষেদিকে নামালে ম্যাচ জিততাম ৷ কার্তিকের জন্য ম্যাচ হারলাম’’ লিখেছেন বিকাশ দত্ত।

আয়াত ফাতিমা লিখেছেন, ‘‘সত্যি বলতে অনেক আনন্দ লাগতেছে। বাট ভারত ফাইনালে যাওয়ার দল ছিলো। অহংকার ভালো না। ইচ্ছে করে ইংল্যান্ডের কাছে হারছে যাতে পাকিস্তান সেমিতে না যায়। আর আজ হাজার চেষ্টায় জিততে পারেনি।’’

‘‘ধনি এবং জাদেজার খেলা দেখে আমি অবাক হয়ে গেছি। যদিও চেয়েছিলাম ভারত ঠকুক তবে ওদের জন্যও আমি খুশি। ভারত সত্যি জাতি খেলোয়ার’’ লিখেছেন সাদাদ সাদ্দাম।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন