ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

পীরগঞ্জে রাস্তায় ধানের চারা লাগিয়ে প্রতিবাদ

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০১ এএম


ব্যবহারে অযোগ্য খানাখন্দে ভরা পীরগঞ্জ পৌর শহরের কাজী নজরুল ইসলাম সড়ক টিএনটি এলাকায় চলাচলের অনুপযোগী রাস্তাটির কাদামাটিতে ধানের চারা লাগিয়েছি এলাবাসী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাস্তাটির মাঝে এই ধান রোপন করেন বিক্ষুদ্ধ পথচারীরা। অথচ পৌর শহরের প্রান কেন্দ্রের এ সড়কটি একটি ব্যস্ততম সড়ক। এ সড়ক দিয়ে পৌরসভার রথুনাথপুর গ্রামের সরকারপাড়া, পানুয়াপাড়া, ঈদগা বস্তি ও মিত্রবাটি মহল্লার লোকজন চলাচল করে। এ সড়কে প্রাণি সম্পদ অফিস, পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিস, টেলিফোন অফিস, ব্রাক অফিস, ইএসডিও এবং ঠেঙ্গামারা অফিস, রঘুনাথপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল, ইকো পাঠশালা, মহিলা কলেজ, আরএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন জন গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান এবং দোকান পাঠ রয়েছে।

এছাড়াও উপজেলার দৌলতপুর, জাবরহাট, বৈরচুনা ও সেনগাও ইউনিয়নের লোকজন ও যানবাহন শহরে ঢুকার একমাত্র রাস্তা এটি। রাস্তটি দিয়ে প্রতিনিয়তে হাজার হাজার মানুষের পাশাপশি শিক্ষার্থীরা এবং নানান প্রকার ভারী ও হালকা যান চলাচল করে। রাস্তাটি খানা খন্দে ভড়ে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে সংশ্লিষ্টদের। খানাখন্দের কারণে যান চলাচলে প্রায়ই ঘটে দুর্ঘটনা। রাস্তাটি নিয়ে চরম ক্ষোভের সুষ্টি হয।এলাকাবাসীর মধ্যে। রাস্তাটি এলজিইডি’র হওয়ার কারণে পৌরসভার পক্ষে কাজ করা সম্ভব হযয়ে উঠেনি। এ নিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় লেখালেখিও হয়। এ অবস্থায় জনস্বার্থে কথা বিবেচনা করে সড়কটি চলাচলের উপযোগী করতে কাপেটিং তুলে ইট খোয়া বিছিয়ে রোলার করার কাজ করছে পৌরসভা কিন্তু বৃষ্টির পানিতে বালু ও ইট গুঁড়ো হয়ে কাঁদায় পরিণত হয়েছে।

পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র কশিরুল আলম জানান, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীন পৌর শহরের বটতলা থেকে দক্ষিনমুখী কাজী নজরুল ইসলাম সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। রাস্তাটি সংস্কার করার জন্য এলজিইডি কর্তৃপক্ষকে বহুবার চিঠি দেয়া হয়। কিন্তু কোন লাভ হয়নি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন