ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের উপরে আস্থা রাখছেন ট্রাম্প, শঙ্কিত ভারত

কাশ্মির নিয়ে ফের মধ্যস্থতার প্রস্তাব ট্রাম্পের : অস্বস্তিতে ভারত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:০৮ এএম | আপডেট : ৩:৩১ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সোমবার নিউইয়র্কে ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠক করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরে এক সাথে সংবাদমাধ্যমের সামনেও হাজির হন। সেখানে অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে আবারো মধ্যস্থতা করার প্রস্তাব দেন ট্রাম্প। এমনকি এক দিন আগে হিউস্টনে নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে ঘুরলেও, ইমরানের পাশে বসে প্রকাশ্যে যে মনোভাব দেখিয়েছেন, তা অনেকের কাছে বেসুরো ঠেকেছে। ট্রাম্প বলেন, ‘পাকিস্তানের উপর আস্থা রয়েছে আমার। আমি চাই কাশ্মীরের মানুষ ভাল থাকুন। নরেন্দ্র মোদি এবং ইমরান খান, দু’জনের সঙ্গেই আমার ভাল সম্পর্ক রয়েছে। ওরা চাইলে কাশ্মীর সমস্যা দূর করতে পারি। মধ্যস্থতা ভালই পারি আমি।’

পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকের পর সোমবার উপত্যকা নিয়ে তৃতীয় বারের মতো মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাতে শঙ্কিত হয়ে পড়েছে ভারতের রাজনৈতিক মহল। সিঁদুরে মেঘ দেখতে শুরু করেছিলেন আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরাও। তবে এ নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই বলে দাবি করেছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তাদের কথায়, জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে নিজেদের অবস্থানেই অনড় ভারত। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠক পর্যন্ত সকলকে অপেক্ষা করতেও অনুরোধ জানিয়েছে তারা। জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে কোনও তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ চায় না ভারত, আরো একবার জানিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

হিউস্টনের মঞ্চে ইসলামি সন্ত্রাস নিয়ে মন্তব্য করলেও পাকিস্তান নয়, তিনি আসলে ইরানকেই নিশানা করেছিলেন বলেও জানিয়ে দেন ট্রাম্প। তার এই মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে যায় কূটনৈতিক মহলে। প্রশ্ন ওঠে, কাশ্মীর নিয়ে ভারত কি বড্ড বেশি আত্মবিশ্বাসী হয়ে পড়েছিল? সন্ত্রাস ইস্যুতে পাকিস্তানকে কোণঠাসা করতে গিয়ে শেষ হাসি হাসতে পারবে তো ভারত?

এই জল্পনার মধ্যে সোমবার রাতেই বিবৃতি প্রকাশ করে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। দিল্লিতে সংবাদ সম্মেলন ডেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (ওয়েস্ট) গীতেশ শর্মা বলেন, ‘এখনই কোনও সিদ্ধান্তে না পৌঁছে, মোদি-ট্রাম্পের বৈঠক পর্যন্ত অপেক্ষা করাই শ্রেয়।’ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রভীশ কুমার বলেন, ‘আমাদের অবস্থান স্পষ্ট। অতীতেও তা জানিয়েছি। তবে আমার অনুরোধ, মঙ্গলবারের বৈঠক পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। বেশি দেরি তো নেই।’

গত আগস্ট মাসে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ এবং অধিকৃত এলাকাটি ভেঙে দু’টি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠন করায় গত দু’মাসে ভারত-পাক সঙ্ঘাত চরমে উঠেছে। জম্মু কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়, এ ব্যাপারে বাইরের কারও হস্তক্ষেপ বরদাস্ত করা হবে না বলে যদিও আগেই জানিয়ে দিয়েছে ভারত। তবে এখনও পর্যন্ত আন্তর্জাতিক মহলে ভারতকে কোণঠাসা করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। সেই উদ্দেশ্যেই গত শনিবার আমেরিকায় পা রাখেন ইমরান খান। ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। আর সেখানেই কাশ্মীর নিয়ে আবারো একবার মধ্যস্থতার প্রস্তাব দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এর আগে, জুলাই মাসে ইমরান খানকে পাশে নিয়েই প্রথম বার কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দেন ট্রাম্প। নরেন্দ্র মোদিও তাকে এ ব্যাপারে বিশেষ অনুরোধ করেছেন বলে সেইসময় দাবি করেন তিনি। যদিও পরে তার দাবি অস্বীকার করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। সূত্র: রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন