ঢাকা বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৭ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ফুলবাড়ীতে নেসকো’র মিটার রিডারের হাতে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী কন্যা লাঞ্ছিত

দোষী মিটার রিডারকে চাকরি থেকে বরখাস্ত

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৩:৪৮ পিএম

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে নর্দান ইলেকট্রিক সাপ্লাই (নেসকো) এর মাষ্টার রোলের মিটার রিডার এ এম শাহেদ ইসলাম কর্তৃক এক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী কন্যাকে মারপিট ও লাঞ্ছিত করার ঘটনা ঘটেছে।

গত মঙ্গলবার বিকেলে পৌর এলাকার উত্তর সুজাপুর গ্রামে এই হামলা ও মারপিটের ঘটনা ঘটে। হামলা ও মারপিটের ঘটনায় আহত মুক্তিযোদ্ধা মৃত মতিয়ার রহমানের স্ত্রী মমেনা বেওয়া (৫৮) ও কন্যা জোরাইয়া বেগম (২৭)কে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দিন সন্ধায়, ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরী ও নেসকোর ফুলবাড়ী বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রের আবাসিক প্রকৌশলী উজ্জল আলী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে আহতদের চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন।

এদিকে এই ঘটনায় মাষ্টার রোলের মিটার রিডার এএম শাহেদ ইসলামকে, তার মাষ্টার রোলের চাকুরি থেকে তৎক্ষনাৎ বরখাস্ত করেছে নেসকোর ফুলবাড়ী বিদুৎ সরবরাহ কেন্দ্রের আবাসীক প্রকৌশলী উজ্জল আলী।

বরখাস্ত হওয়া মিটার রিডার এএম শাহেদ পৌর এলাকার পশ্চিম গৌরীপাড়া গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে। সে নেসকোর ফুলবাড়ী বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রে মাষ্টার রোলে মিটার রিডার পদে কর্মরত ছিল।

মুক্তিযোদ্ধা মতিয়ার রহমানের স্ত্রী মমেনা বেগম বলেন, মিটার রিডার এএম শাহেদ ইসলাম মিটার পরিদর্শন না করে, ঘরে বসে ইচ্ছামত বিদুৎ বীল তৈরী করেন। এই ঘটনাটির প্রতিবাদ করায় মিটার রিডার এএম শাহেদ ইসলাম তার মেয়ে জোরাইয়া বেগমকে অকর্থ ভাষায় গালি গালাজ করে। এই সময় তিনি গালি গালাজ করার কারণ জিজ্ঞাসা করতে এলে তাকেও ধাক্কা মারে ও তার সাথে থাকা সঙ্গি রহিমসহ তাকে ও তার মেয়েকে কিল ঘুষি মেরে চরম ভাবে আহত করে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে নেসকোর আবাসিক প্রকৌশলী উজ্জল আলী বলেন,ওই মিটার রিডার এএম শাহেদ ইসলাম মাষ্টার রোলে কর্মরত ছিল। অফিসকে অবহিত না করে সেখানে গিয়ে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সাথে একটি অপ্রীতিকর ও দুঃখজনক ঘটনা ঘটিয়েছে,এই ঘটনার সাথে নেসকোন কোন সম্পর্ক নেই। তিনি বলেন ঘটনা জানার সাথে সাথে ওই মাষ্টার রোলের মিটার রিডার এএম শাহেদকে তিনি তৎক্ষনাৎ বরখাস্ত করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন