‍বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ১১ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

সারা বাংলার খবর

শেখ হাসিনার কারণেই শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে ও ছাত্রছাত্রীরা বিনা পয়সায় নতুন বই পাচ্ছে -খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার

নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৪:৫২ পিএম

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে তার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে একটি উন্নয়নের রোল মডেলে তৈরি করেছেন। আজ যদি শেখ হাসিনা না থাকত, দেশে এত উন্নয়ন হত না। তিনি বেঁচে আছেই বলেই স্কুল কলেজের ভবন, রাস্তাঘাট, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ হচ্ছে, শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে ও বিনা পয়সায় বই পাচ্ছে। আর মাত্র কয়েক দিন পর ছাত্ররা বিনা পয়সায় নতুন বই পাবে, নতুন বই হাতে করে নিয়ে বাড়িতে যাবে অথচ আমরা যখন পড়াশুনা করেছি পুরাতন বই নেয়ার জন্য বাড়ি বাড়ি ঘুরতাম, আর এখন কেউ পুরাতন বই হাতে নিতে চায় না। আর নেয়ার দরকার নাই, প্রধানমন্ত্রী সে ব্যবস্থা রাখে নাই। তিনি শুক্রবার বিকেলে নওগাঁর বোয়ালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ বছর পূর্তি উৎসব উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথাগুলো বলেন।

মন্ত্রী আর বলেন, দেশে আজ সৎ মানুষের খুব অভাব, দেশ প্রেম যতক্ষণ না থাকবে ততক্ষণ আমাদের মাঝে সততা আসবে না। অনেক সৎ মানুষ পাওয়া যায়, কিন্তু দেশপ্রেমিক মানুষ পাওয়া যায় না। যার মাঝে দেশপ্রেম আছে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা রয়েছে এ দেশকে উন্নতির জন্য এগিয়ে নিয়ে যেতে চায় সেরকম সৎ মানুষের দরকার। তিনি নতুন প্রজন্মর উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের হাতেই এ বাংলাদেশ এবং লাল সবুজের রক্ত স্নাত এ পতাকা নিরাপদ থাকবে। তাই তাদের দুর্নীতিমুক্ত, মাদকমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, নিজেকে গড়ে তোলার এবং মানুষের মতন মানুষ হবার আহবান জানান।

বিদ্যালয়ের সভাপতি ও সাবেক এমপি শাহীন মনোয়ারা হকের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে জেলা প্রশাসক হারুন-অর-রশিদ, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার রাশিদুল হক, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও উদযাপন কমিটির আহবায়ক এস,এম শহীদুল আলম, প্রধান শিক্ষক শ্যামল কুমার সহ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রীরা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক ও নৃত্যানুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এর আগে বর্নীল সাজে সজ্জিত হয়ে বিদ্যালয় চত্বর থেকে একটি বর্ন্যাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে প্রায় ৪কিলোমিটার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে পুনরায় বিদ্যালয়ে এসে শেস হয়। শোভাযাত্রায় বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রীরা অংশ গ্রহন করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন