ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

মহানগর

১০ ফেব্রুয়ারি সংসদে বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীকে জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের অভিনন্দন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৫৪ পিএম | আপডেট : ৭:৩৬ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০

জাতীয় সংসদে ইসলাম ও দেশের আলেম সমাজের ভূমিকা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখার জন্য বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি আলহাজ্ব এ এম এম বাহাউদ্দীন ও মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা শাব্বীর আহমদ মোমতাজী এক বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এক অভিনন্দন বার্তায় নেতৃবৃন্দ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা গত ১০ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে ইসলাম ও দেশের আলেম সমাজের ভূমিকা সম্পর্কে যে বক্তব্য রেখেছেন তা অত্যন্ত বাস্তবসম্মত, গুরুত্বপূর্ণ ও সময়োচিত। আমরা তাঁর এই বক্তব্যের জন্য কৃতজ্ঞ।
প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “শিক্ষার্থীদের মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষকদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ইসলাম ধর্মের অপব্যাখ্যা ও জঙ্গিবাদ সম্পর্কে সচেতন করা হচ্ছে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, তিনি যথার্থ বলেছেন “ইসলাম ধর্ম শান্তির ধর্ম কোরআন ও হাদিসের আলোকে তা তরুণ শিক্ষার্থীদের বোঝাতে, দেশের আলেম সমাজ সক্রিয় সহযোগিতা করেছেন”। আমরা দেশের সরকার অনুমোদিত মাদরাসা শিক্ষক ও কর্মচারীদের ঐতিহ্যধন্য একমাত্র সংগঠন বাংলাদেশে জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের পক্ষ থেকে এ বক্তব্যের জন্য আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।
বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের সভাপতি ও মহাসচিব বলেন, সত্যিই ইসলাম শান্তির ধর্ম, জঙ্গিবাদ-উগ্রবাদ, সন্ত্রাসবাদের সাথে ইসলামের কোন সম্পর্ক নেই। আলেম সমাজ তথা মাদরাসা শিক্ষক, পীর-মাশায়েখদের সাথে দেশের সর্বস্তরের জনগণের রয়েছে অত্যন্ত নিবিড় সম্পর্ক। তারা ক্লাস রুমে যেমন, তেমনি মসজিদের খোতবায়, ওয়াজ মাহফিলের বক্তৃতায় অত্যন্ত বলিষ্ঠ ভাষায় জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ, উগ্রবাদের কুফল সম্পর্কে জনগণকে সতর্ক করে চলেছেন। কুরআন হাদিসের আলোকে তুলে ধরেছেন ইসলামের সঠিক পথ। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে প্রচার করে চলেছেন, শান্তি ও সহমর্মিতার ধর্ম ইসলামের সাথে চরমপন্থা, উগ্রতা, অরাজকতা, বিশৃঙ্খলা, ফেতনা-ফ্যাসাদের কোনই সম্পর্ক নেই। এসব ইসলাম গর্হিত কাজ। আল্লাহ পাকের মেহেরবানিতে ঐসব ভ্রান্ত মতবাদ এ দেশে যে ঠাঁই পায়নি তার পেছনে আলেম সমাজের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সংসদে দেয়া এই বক্তব্যে রয়েছে তারই স্বীকৃতি। আমরা ঘোষণা করছি যে, আলেম সমাজ সর্বদা এই ভূমিকা দৃঢ়তার সাথে পালন করে যাবে, ইনশাআল্লাহ।
উল্লেখ্য যে, ইতোমধ্যে জমিয়াতুল মোদার্রেছীনের উদ্যোগে জেলা, উপজেলা ও প্রতিটি মাদরাসায় এবং জাতীয় পর্যায়ে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে দেশের সর্বত্র সভা, সমাবেশ, র‌্যালি, মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছি। বর্তমানেও এ তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন