ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

প্রেমময়ী মনোরঞ্জন বাহিনী

কিম জং-উনের প্রমোদ রেল-২

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ এপ্রিল, ২০২০, ৮:৫২ পিএম

দীর্ঘ ট্রেন ভ্রমণে কিম জং উনকে প্রফুল্ল রাখে ইপিউমজো নামের নারী বাহিনী -এপি


খাটো, স্থূল ও অত্যাচারী শাসক কিম জং-উন লম্বা এবং সুন্দরী নারীদের নিয়োগদানের জন্য ২০১৫ সালে একটি বিশেষ কার্যক্রম পরিচালনা করেন বলে বলে জানা যায়। এই স্বৈরশাসক তার বিলাসবহুল প্রমোদ রেলে দীর্ঘদেহী ও সুদর্শনা কুমারী মেয়েদের নিয়ে মজে থাকতে পছন্দ করতেন। নিয়োগ পাওয়ার আগে, মেয়েদের কুমারীত্ব অটুট রয়েছে কিনা, তা একজন চিকিৎসকের মাধ্যমে পরীক্ষা করে দেখা হত বলে জানা যায়।

জানা যায়, মেয়েরা গৃহীত হলে, ইপিউমজো নামে পরিচিত জং-উন’র সেই নারী বাহিনীতে যোগদানের আগে জনপ্রতি ১ হাজার ৪শ’ পাউন্ড করে দেয়া হতো, যা উত্তর কোরিয়াতে একটি বিশাল অঙ্কের অর্থ।

শোনা যায়, জং-উনের বাবা প্রয়াত কিম জং-ইল বিমান ভ্রমণ ভীষণ অপছন্দ করতেন। তিনি উত্তর কোরিয়ার আশেপাশে, চীন, রাশিয়া এবং পূর্ব ইউরোপে রাষ্ট্রীয় সফরের জন্য জং-উনের মতোই ঠিক এমনই একটি সাঁজোয়া ট্রেন ব্যবহার করতেন। কিম জং-ইল বিলাসিতাপূর্ণ রুচি এবং প্রচুর পরিমাণে ভ‚রিভোজ, নেশায় বুঁদ হওয়ার আসর ও কারাওকের অনুরাগী হিসাবে পরিচিত ছিলেন।

২০০১ সালে জং-ইলের সাথে মস্কো ভ্রমণকারী এক রাশিয়ান কর্মকর্তা বলেছিলেন যে, ট্রেনটি বোর্দো এবং বোঁজোলেই’র মতো উচ্চমানের মদে ঠাসা ছিল, যা বিশেষভাবে প্যারিস থেকে আনানো হয়েছিল।

ভ্রমণকারীরা রুপার চপস্টিকস ব্যবহার করে টাটকা গলদা চিংড়ি এবং শূকরের মাংসের বারবিকিউ খেতে পারতেন। সুন্দরী নারী পরিচারিকারা প্রেমময়ী মিষ্টি মধুর কন্ঠে তাদের আবিষ্ট করে রাখতেন। সাধারণত, যখনই উত্তর কোরিয়ার কোনো নেতা ভ্রমণ করেন, ৩টি উচ্চ মাত্রার সুরক্ষা সম্পন্ন ট্রেন যাত্রা শুরু করে।

অগ্রিম ট্রেনের নিরাপত্তারক্ষীরা পেতে রাখা বোমা অনুসন্ধান করে এবং স্টেশনগুলির সুরক্ষা পরীক্ষা করে। নেতা এবং তার সার্বক্ষণিক কর্মচারীরা পরবর্তী ট্রেনে অবস্থান করেন এবং দেহরক্ষী এবং সরবরাহসহ ৩য় ট্রেনটি আসে পূর্বেরটিকে অনুসরণ করে। ট্রেনের প্রতিটি বগিই বুলেটপ্রææফ যা ট্রেনটিকে গড়পরতার চেয়ে অনেক বেশি ভারী এবং ধীরগতির করে তোলে।

উত্তর কোরিয়ার নেতা এবং তার অতিথিদের ওরিয়েন্ট এক্সপ্রেসের এই সাঁজোয়া সংস্করণটির জাঁকজমক উপভোগ করার জন্য আরো বেশি সময় দিয়েও প্রতি ঘণ্টায় ৩৭ মাইলের বেশি গতিতে যেতে পারে না। (সমাপ্ত)

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Hazrat Ali ৩০ এপ্রিল, ২০২০, ৯:৪৬ পিএম says : 0
Rajar deshe to Rajai sob.....
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন