ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনের বিল পরিশোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশের বাস্তবায়ন নেই

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০২০, ৪:৩৯ পিএম | আপডেট : ৪:৪০ পিএম, ৪ মে, ২০২০

দেশের সকল গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনের বিল পরিশোধ করতে সকল মন্ত্রণালয়ের সচিবকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ নির্দেশনা দিয়ে চিঠি দিলেও তা এক সপ্তাহে বাস্তবায়ন করা হয়নি। আবার অর্থ মন্ত্রণালয় টাকা না দেয়ার কারণে পত্র-পত্রিকার বিজ্ঞাপন বিল পরিশোধ করতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন কয়েকটি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।
সরকারের কাছে পাওনা বিজ্ঞাপনের বিল পত্রিকাসহ সব গণমাধ্যমকে পরিশোধের নির্দেশনা দিয়ে গত সপ্তাহে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব ছাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত চিঠি ৫৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সচিবকে পাঠানো হয়েছে। চিঠিতে বিল পরিশোধের বিষয়টি যেন মন্ত্রিপরিষদকে অবহিত করা হয় সে বিষয়েও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
আজ সোমবার পর্যন্ত পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ, স্বাস্থ্য পরিবার ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, রেলপথ মন্ত্রণালয়, বিদ্যুৎ বিভাগ, ভুমি মন্ত্রণালয়সহ অনেক মন্ত্রণালয় এখনো গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনের বিল পরিশোধ করতে পারেনি জানা গেছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা ইনকিলাবকে বলেন, অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে টাকা ছাড় না দেয়ার কারণে পত্র-পত্রিকার বিজ্ঞাপন বিল পরিশোধ করা যাচ্ছে না। অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে টাকা পাওয়া গেলে দ্রুত গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনের বিল পরিশোধ করা হবে।
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ চিঠিতে উল্লেখ করা হয় বিভিন্ন মাধ্যম থেকে জানানো হয়েছে যে, বিভিন্ন গণমাধ্যম সরকারের অনেক মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও দপ্তরের কাছে বিজ্ঞাপন বাবদ বিল পায়। করোনা পরিস্থিতির কারণে সরকারি দপ্তর বন্ধ থাকায় অনেক বিল জমা হয়ে গেছে। এ সময় জরুরি কাজের সঙ্গে যুক্ত গুরুত্বপূর্ণ গণমাধ্যম খাতের আর্থিক কার্যক্রম চালাতে সমস্যা হচ্ছে। এমন অবস্থায় সব সরকারি প্রতিষ্ঠান যেন তাদের কাছে বকেয়া থাকা পত্রিকা ও অন্য সব গণমাধ্যমের বিল পরিশোধ করেন।
তথ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনার কারণে লকডাউন পরিস্থিতিতে গত সপ্তাহে আনুষ্ঠানিকভাবে সীমিত পরিসরে সচিবালয় খোলা হয়। ওই দিন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে একজন কর্মকর্তা পত্রিকাসহ সব গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপন বিল পরিশোধে সব মন্ত্রণালয়কে তাগিদ দেওয়ার কথা জানান। এর পরিপ্রেক্ষিতে তথ্যমন্ত্রী তাৎক্ষণিকভাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামকে ফোন করে পত্রিকায় প্রকাশিত বিজ্ঞাপনের বিল পরিশোধের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন। এরপর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সব মন্ত্রণালয় ও বিভাগে চিঠি পাঠানো হয়।
গত ৩০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈটক করেন নিউজপেপার ওনার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ প্রতিনিধিরা। এ সময় তথ্যমন্ত্রী বলেন, সংবাদপত্রের জন্য ব্যাংক ঋণ সুবিধা ও সংবাদপত্রের হকার, পরিবহন শ্রমিক ও এজেন্টদের জন্য আর্থিক প্রণোদনার ঘোষণা এবং সরকারি ক্রোড়পত্রসহ বিভিন্ন বিজ্ঞাপনের বকেয়া বিল যাতে সংবাদপত্রগুলো দ্রুত পেতে পারে সেজন্য তথ্য মন্ত্রণালয় জোরালো ভূমিকা পালন করছে।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে সংবাদপত্রের যে বকেয়া বিলগুলো রয়েছে, সেগুলো পরিশোধের জন্য ইতোমধ্যেই মন্ত্রিপরিষদ থেকে চিঠি দিয়ে দেয়া হয়েছে। যাতে সব মন্ত্রণালয় সংবাদপত্রের বকেয়া পরিশোধ করে। এ ব্যাপারে আমরা আগামী সপ্তাহে আমাদের মন্ত্রণালয় থেকে আরেকটা তাগিদপত্র সব মন্ত্রণালয়ে দেব। কিন্তু এখনো কোন গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনের বিল পায়নি বলে জানা গেছে। তবে ডিএফপি গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনের বিল প্রস্তুত করলেও তা এজি অফিসের কারণে দিতে পারছে না বলে জানা গেছে। তবে ডিএফপির ডিসি বলেছেন, দুই এক দিনের মধ্যে গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনের বিল দেয়া হবে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন