ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সরকার ভয়ংকর মহামারীর মধ্যেও ধরপাকড় অব্যাহত রেখেছে সিরাজদিখানে রুহুল কবির রিজভী

সিরাজদিখান(মুন্সীগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০২০, ১২:৫৩ পিএম

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘সরকার এই ভয়ংকর মহামারীর মধ্যেও ধরপাকড় অব্যাহত রেখেছে,নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিচ্ছে। এই দুর্যোগের মধ্যে বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এর নির্দেশে ত্রাণ দিচ্ছি। দুঃখের বিষয় হল সরকার এসব বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেনি। আজ দেশে সাংবাদিক, পুলিশ সদস্য মারা যাচ্ছে। এভাবে দেশে লাশের সারি বৃদ্ধি পাচ্ছে। অথচ সরকার করোনা রোগীদের বাঁচাতে উন্নত হাসপাতালের ব্যবস্থা করেনি। ক্ষুধার্ত মানুষ দিন আনে দিন খায়। সরকার চায় না গরীব মানুষ বেঁচে থাকুক। সরকার একবার বলে লকডাউন শিথিল, আরেকবার বলছে লকডাউন চলবে-এভাবে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে।’ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার নিমতলা সুখের ঠিকানা এলাকায় কেন্দ্রীয় বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপুর উদ্যোগে ৩ শতাধিক হত দরিদ্রদের মাঝে সেমাই,চিনি,চাল,ডাল,তেলসহ খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এ সব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, লকডাউন শাটডাউন মেনে চলতে হবে, সাবধানতা ভাবেই কাজ করতে হবে-এটা হচ্ছে করোনার মূল প্রতিষেধক। অত্যন্ত দু:খের বিষয় সরকার এ ব্যাপারে কোন কিছুই করেনি। তারা ত্রান বিতরণে নিজেদের লোক নিয়োগ দিয়েছে। আর নেতাকর্মীরা লুটে খাচ্ছে ত্রান। তাদের বাড়িতে ত্রানের চাউল থেকে তেল সব কিছু পাওয়া যাচ্ছে।

খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-কেন্দ্রীয় বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সিরাজদিখান উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস ধীরন, কেন্দ্রীয় যুবদলের যুগ্ম-সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল আহমেদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সভাপতি আওলাদ হোসেন উজ্জল প্রমুখ। পরে জেলার শ্রীনগর উপজেলার বীরতারা ইউনিয়নের সাতঘরিয়া এলাকায় হতদরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন রহুল কবির রিজভী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন