ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সাতক্ষীরায় মারপিটে চার আইনজীবি আহত

সাতক্ষীরা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০২০, ৫:৪৭ পিএম

সাতক্ষীরায় চারজন আইনজীবি মার খেয়ে আহত হয়েছেন। আহতরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। মঙ্গলবার (০৭) দুপুরে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবি সমিতির ২য় তলায় এই মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগ, তাদেরকে বেধড়ক পিটিয়েছেন আইনজীবী সমিতির সভাপতিসহ কয়েকজন সরকারি আইনজীবী।
আহতরা হলেন,-এডভোকেট নুরুল আমিন, এডভোকেট জুলফিকার আলী শিমুল, এডভোকেট সরদার সাইফ ও এডভোকেট তোহা কামাল হীরা। এরা সবাই বিএনপি’র রাজনীতির সাথে জড়িত।
সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন এডভোকেট নুরুল আমিন জানান, আমিসহ আমরা বেশ কয়েকজন আইনজীবী সমিতির ২য় তলায় নিজেদের অবস্থানে বসা ছিলাম। এমতাবস্থায় বেলা দেড়টার দিকে সমিতির সভাপতি এড. শাহ আলম এসে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এর প্রতিবাদ করলে তিনিসহ তার সহযোগীরা আমাদের ওপর ঝাপিয়ে পড়ে। কিল,ঘুষি,চড়-থাপ্পড় মারতে থাকে। এদের মধ্যে একজন লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এতে তিনিসহ চারজন আহত হয়েছেন। তিনি আরো বলেন, বেধড়ক পিটিয়েছে শাহ আলমসহ তার সহযোগীরা। এসব দৃশ্য দেখে বিএনপি পন্থীর আইনজীবীরা ভয়ে রুম থেকে দ্রুত বাইরে চলে যান। তিনি বলেন, পরে তারাও কোনো রকমে পালিয়ে জীবন বাঁচিয়েছেন।
কেনো তাদেরকে মারপিট করা হলো এমন প্রশ্নের জবাবে এডভোকেট নুরুল আমিনসহ আহতরা বলেন, কে বা কারা জেলা জজ শেখ মফিজুর রহমানের কাছে তিন পাতার একটি অভিযোগপত্র দিয়েছেন। এই অভিযোগে না-কি এন আমিন নামের জনৈক ব্যক্তির স্বাক্ষর রয়েছে। ওই অভিযোগ পত্রে না-কি এড.শাহ আলমসহ সাতজন সরকারি আইনজীবীর বিরুদ্ধে জেলা জজের নাম ভাঙিয়ে অর্থ আদায়সহ বিভিন্ন অপকর্মের কথা বলা হয়েছে। বিষয়টি জেলা জজ এড শাহ আলমসহ অভিযুক্তদের জানান। এরপর সন্দেহ করেই তারা তাদের ওপর এমন আক্রমন করেছে।
জেলা জজের কাছে প্রেরিত অভিযোগপত্র সম্পর্কে তারা কোনো কিছুই জানেন না উল্লেখ করে আহতরা আরো বলেন, শুধুমাত্র বিএনপি পন্থী আইনজীবী হওয়ায় এবং পেশাগত ঈর্ষায় তারা এধরণের ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে জেলা আইনজীবী সমিতিতে। তারা বিষয়টি ঢাকার উর্দ্ধতন আইনজীবী কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন। একই সাথে মারপিটকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।
এবিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট শাহ আলম বলেন, কোনো মারামারি হয়নি। তবে ঠেলা-গুতো হলে হতে পারে। এছাড়া, অভিযোগপত্র নিয়ে কোনো সন্দেহ নয়, ওদের বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইমে মামলা হচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন