ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বালিয়াকান্দিতে জমি নিয়ে বিরোধে দোকান-বাড়ী ভাংচুর, আহত-৬

বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০২০, ৫:৩১ পিএম

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের চষাবিলা গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধে বুধবার সন্ধ্যায় দোকান ও বসতবাড়ী হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় ৬ জন আহত হয়েছে।

উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের চষাবিলা গ্রামের শহর আলী জোয়াদ্দারের ছেলে লোকমান জোয়াদ্দার জানান, আমরা হাই মন্ডল ও নজরুল মল্লিকের সমাজ বুক্ত বাবে বসবাস করে আসছিলাম। জমি সংক্রান্ত বিষয়ে রুস্তম আলী জোয়াদ্দারের ছেলে ইসলাম জোয়াদ্দারের সাথে বিরোধের চলছিল। তারা রাতে আমার জমিতে ঘর উত্তোলনের চেষ্টা করে। বুধবার সন্ধ্যায় নজরুল মল্লিক ও হাই মন্ডলের নেতৃত্বে ইসলাম জোয়াদ্দার, ইউনুছ জোয়াদ্দার, ইদ্রিস জোয়াদ্দার, ইউসুফ জোয়াদ্দার, মুছা জোয়াদ্দার, শফি খান, সুইট মন্ডল, মহসীন মন্ডল, জিয়ারুল মন্ডল, খোকন মন্ডলসহ প্রায় শতাধিক ভারাটিয়া লোকজন দৈশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে আমার মুদি দোকান ভাংচুর করাসহ দোকানে থাকা ফ্রিজ, গ্যাস সিলিন্ডার, ডিজেল, পেট্রোল, মোবাইল লোড, চাউলসহ বিভিন্ন প্রকার ৬-৭ লক্ষ মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। আমার ভাই সোবহান জোয়াদ্দারের চায়ের ও মুদিখানার দোকান ভাংচুর করে টেলিভিশন ও অন্যান্যে মালামালসহ ৮০ হাজার টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। এছাড়াও বসতবাড়ীর ৩টি ঘর কুপিয়ে ও ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষতি করে। ৩টি আম ও মেহগনি গাছ কেটে নিয়ে যায়। প্রতিপক্ষের মারপিটে আবু বক্কার জোয়াদ্দার,আলেয়া বেগম, আলাই সরদার ,এলাহী জোয়াদ্দার, আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
উপজেলার নারুয়া ইউনিয়নের চষাবিলা গ্রামের ইসলাম জানান, তারা মারপিট কওে ইদ্রিস জোয়াদ্দার ও খোকন সরদারকে আহত করেছে। আহতদেরকে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন