ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কক্সবাজারে এড. ওসমানী সহ পরিবারের ৯ সদস্য করোনামুক্তঃ প্রতি কৃতজ্ঞতা

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০২০, ৯:০৬ পিএম

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও গণমাধ্যমকর্মী এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী করোনামুক্ত হয়েছেন। শুক্রবার ১০ জুলাই কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাব হতে এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী'র ফলোআপ টেস্ট রিপোর্ট 'নেগেটিভ' আসে।

এছাড়া এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী'র পরিবারের অন্য ৮ সদস্যও করোনামুক্ত হয়েছেন। গত ২৩ জুন স্যাম্পল টেস্টে দিয়ে ২৫ জুন এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী সহ পরিবারের ৯ সদস্য করোনা পজেটিভ হয়েছিলেন।

আরো যারা করোনা পজেটিভ হয়েছিলেন, তারা হলেন, তার সহধর্মিণী তসলিমা ওসমানী (৩৮), তাঁর মা উম্মে হাবিবা ওসমানী (৪ জুন ইন্তেকাল করেছেন), তার জ্যেষ্ঠ কন্যা তানজিম ওসমানী সুবাহ, মেঝ কন্যা ও ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী নাদিয়া ওসমানী জাইমা, একমাত্র বোন দিলরুবা ওসমানী (৩৭), ভগ্নিপতি, কক্সবাজার জেলা পরিষদের কর্মকর্তা মোঃ আবদুল মান্নান, তার একমাত্র পুত্র সন্তান আশরাফুল মনির তামজিদ ও গৃহকর্মী রিনা আক্তার।

এদের মধ্যে, বোন দিলরুবা ওসমানী (৩৭), ভগ্নিপতি, কক্সবাজার জেলা পরিষদের কর্মকর্তা মোঃ আবদুল মান্নান গত ১৮ জুন করোনা 'পজেটিভ' হন। এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী'র মাতা উম্মে হাবিবা ওসমানী (৭০) কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে করোনা 'পজেটিভ' হয়ে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় গত ৪ জুন সকাল ৯ টার দিকে ইন্তেকাল করেছেন। তার বোন ও ভগ্নিপতি আরো আগে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

এদিকে, গণমাধ্যমকর্মী এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী তাঁর ও তার পরিবারের আরো ৮ সদস্যের সুস্থতার জন্য মহান আল্লাহতায়লার দরবারে শোকরিয়া জ্ঞাপন করেন। তিনি জানান, সরকারি বেসরকারি উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, আইনজীবী, চিকিৎসক, পেশাজীবী, বিভিন্ন সংগঠন, বিভিন্ন দপ্তর, গণমাধ্যম সহ সর্বস্থরের লোকজন তাঁদের শত ব্যস্ততার মাঝেও যেভাবে তাঁর ও তাঁর পরিবারের অসুস্থ সদস্যদের খোঁজ খবর নিয়েছেন, পাশে থেকেছেন, তাতে তিনি অভিভুত ও রীতিমতো মুগ্ধ।

তিনি এজন্য সকলের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে বলেন, আমাদের সকলকেই সম্মিলিতভাবে এই মানবিক প্রচেষ্টাকে কাজে লাগিয়ে প্রিয় মাতৃভূমিকে বিশ্বমানের স্বাস্থ্য সুবিধা সম্বলিত একটি দেশ হিসাবে গড়ে তুলতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে হবে। গড়ে তুলতে হবে-একটি মানবিক ও সুখী সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ।

অসুস্থতার সময় চিকিৎসকের পরামর্শের কারণে ও কথা বলতে অক্ষমতার জন্য অনেকের মোবাইল ফোন রিসিভ করতে না পারায় তিনি সংশ্লিষ্ট সবার কাছে এজন্য ক্ষমা চেয়েছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন