ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

এ মাসেই ক্যাম্প শুরু করতে চান সালাউদ্দিন!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০২০, ১২:৩১ এএম

করোনাকালেই মাঠে গড়াবে কাতার বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বের বাকি ম্যাচগুলো। বাছাইয়ে বাংলাদেশের বাকি আরো চার ম্যাচ। এই ম্যাচগুলোকে সামনে রেখে আগস্টের প্রথম সপ্তাহে জামাল ভূঁইয়াদের ক্যাম্প শুরু করার পরিকল্পনা ছিল ন্যাশনাল টিমস কমিটির। যদিও আগস্টের মাঝামাঝিতে জাতীয় দলের ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে ইংল্যান্ড থেকে ঢাকায় এসে এক সপ্তাহ আইসোলেশনে থেকে ক্যাম্প শুরু করতে চেয়েছেন। তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন চাইছেন এ মাসেই জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু করতে! এর কারণ হিসেবে তার ব্যাখ্যা- ‘দীর্ঘদিন খেলার বাইরে রয়েছেন ফুটবলাররা। ফলে খেলোয়াড়দের ফিটনেস ধরে রাখা কঠিন হয়ে পড়েছে। তাই মাঠের অনুশীলন শুরুর আগে একজন ট্রেনারের অধীনে খেলোয়াড়রা ট্রেনিং করলে ফিটনেসের ঘাটতি অনেকটাই পূরণ হবে’।

শনিবার বাফুফে ভবনে জাতীয় দল এবং বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ১৩টির মধ্যে ১২ ক্লাবের ২৭ জন ফুটবলারের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সালাউদ্দিন এ মাসে ক্যাম্প শুরুর ইচ্ছা প্রকাশ করেন। মতবিনিময় সভায় বাফুফে প্রধান বাছাইয়ের বাকি চার ম্যাচকে বেশ গুরুত্ব দিয়েছেন। তিনি বলেন,‘৮ অক্টোবর আমাদের ম্যাচ শুরু হবে। দেশের মানুষ তোমাদের দিকে তাকিয়ে আছে। কি করতে হবে তোমরা সেটা ভালো করেই বুঝতে পারছো। তোমাদের ফিটনেস লেভেল বাড়ানোর জন্য দরকার হলে এ মাসেই একজন ট্রেনার এনে কাজ শুরু করে দেবো। আমি এ নিয়ে কথা বলবো ন্যাশনাল টিমস কমিটির সঙ্গে।’


কোচ জেমি বলেছিলেন, ৬ সপ্তাহের ক্যাম্প হলেই চলবে। যদি এ মাসেই ফুটবলাররা ট্রেনারের অধীনে চলে যান তাহলে বেশ লম্বাই হবে ক্যাম্প। ১৬ জুলাই ন্যাশনাল টিমস কমিটি সভায় বসে ট্রেনার নিয়োগ ও ক্যাম্প শুরুর ব্যাপারে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। এ প্রসঙ্গে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন,‘সভাপতি চাচ্ছেন কোচ আসার আগেই একজন ট্রেনার দিয়ে খেলোয়াড়দের ফিটনেস ক্যাম্প করাতে। সেটা নিয়েই আগামী বৃহস্পতিবার সভা করবে ন্যাশনাল টিমস কমিটি। তারপর কোচের মতামত নিয়ে সবকিছু চূড়ান্ত করা হবে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন