ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

কাশ্মীরে গণহারে মুসলমানদের হত্যা করা হচ্ছে : ইমরান খান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০২০, ১:৩৭ পিএম

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, কাশ্মীরের পরিস্থিতি ক্রমেই বিপর্যয়কর হয়ে উঠছে। সেখানে ভারতীয় সামরিক বাহিনী গণহারে মুসলমানদের হত্যা করছে। মুসলমানদের বিরুদ্ধে এ ধরনের গণহত্যার পরিণতির বিষয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীকে সতর্কও করেছেন ইমরান খান। ১২ জুলাই, রবিবার কাশ্মীর নিয়ে এই মন্তব্য করেন ইমরান খান। এমন খবর প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম পার্সটুডে।

পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, বসনিয়া-হার্জেগোভিনার সেব্রেনিৎসায় যেভাবে মুসলমানদের গণহারে হত্যা করেছিল সার্ব বাহিনী, ঠিক সে ধরণের পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে কাশ্মীরি জনগণ। ভারতীয় সেনাবাহিনী কোন ধরনের আইনের তোয়াক্কা না করে সেখানে মানুষ হত্যা অব্যাহত রেখেছে। কাশ্মীরের মুসলমানদের হত্যার ক্ষেত্রে তাদেরকে কোনো ধরণের আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হচ্ছে না ।

ইমরান খান আরও বলেন , কাশ্মীরে বর্তমানে ৮০ লাখ মানুষের জন্য ৮ লাখ সেনা মোতায়েন করে রাখা হয়েছে। ৮০ লাখ মানুষকে তারা অবরুদ্ধ করে রেখেছে। এ কারণে গত প্রায় এক বছর ধরে কাশ্মীরিরা তাদের নিত্য দিনের মৌলিক চাহিদা পূরণ করতেও হিমশিম খাচ্ছে।
প্রসঙ্গত, গত বছর ৫ আগস্ট দেশটির সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখকে পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণা করে ভারতের নরেন্দ্র মোদির সরকার। এ নিয়ে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছিল ওই অঞ্চলটিতে। এই ঘোষণার আগে সেখানে ১৪৪ ধরা জারি করা হয়। একইসঙ্গে কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করা হয়। দীর্ঘ ১৪৪ ধারা বজায় থাকার কারণে কাশ্মীরে মানবিক বিপর্যয় দেখা দেয়। এমনকি সেখানকার সাধারণ জনগণকে নির্যাতন করার অভিযোগও উঠেছে দেশটির সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে।

এদিকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ইশতেহার বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে আসছে কাশ্মীরের জনগণ। ওই ইশতেহারে গণভোটের মাধ্যমে কাশ্মীর অঞ্চলের ভবিষ্যত নির্ধারণের কথা বলা হয়। কিন্তু ভারত জাতিসংঘের ইশতেহার বাস্তবায়ন করতে সম্মত নয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন