ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

৪৯ প্রধান শিক্ষক ও ৫৫ শিক্ষকের পদ শূন্য মঠবাড়িয়ার প্রাথমিকে পাঠদান ব্যাহত

প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা : মঠবাড়িয়া উপজেলার ৪৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রধান শিক্ষকের পদ এবং ৫৫ জন সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। ফলে সংশ্লি­ষ্ট বিদ্যালয়গুলোতে পাঠাদানসহ শিক্ষা কার্যক্রমে মারাত্মক বিঘœ ঘটছে। উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ১১ ইউনিয়নে ২০৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে ৪৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের পদ ও ৫৫টি সহকারী শিক্ষকের পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য রয়েছে। প্রধান শিক্ষক না থাকায় বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব¡ পালন করতে হচ্ছে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকরা দাপ্তরিক কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকায় শিক্ষক সংকটের সৃষ্টি হওয়ায় পাঠদান কার্যক্রম ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়েছে। ৮১নং উলুবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বাপী বিশ্বাস জানান, আমার স্কুলে ২০১১ সাল থেকে প্রধান শিক্ষকের পদটি শূন্য রয়েছে। শূন্য রয়েছে প্রাক-সহকারী শিক্ষকের পদও। ৫ জন শিক্ষকের মধ্যে ২টি পদই শূন্য। তার উপর আমাকে দাপ্তরিক কাজে বিভিন্ন সময় শিক্ষা অফিসে ছুটতে হয়। ফলে স্কুলের ক্লাস নিতে হিমশিম খেতে হয়। ব্যাহত হয় শিক্ষার্থীদের পাঠদান। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির আহ্বায়ক মো. আবু জাফর জানান, প্রধান শিক্ষক ছাড়া বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান ও প্রশাসনিক কার্যক্রম ঠিক রাখা সম্ভব না। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কমিটির সভায় এ বিষয়ে একাধিকবার বলা হলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রুহুল আমীন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ৪৯টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদ খালি। ফলে এসব বিদ্যালয়ে প্রশাসনিক কাজ চলছে সহকারী শিক্ষক দিয়ে। এতে সংশ্লি­ষ্ট বিদ্যালয়ে নির্বিঘœ পাঠদানে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে। শিক্ষক সংকটের বিষয়টি ঊর্ধŸতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে অবহিত করা হয়েছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন