ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

পাকিস্তানে অর্থ তছরুপ মামলায় দোষীসাব্যস্ত জারদারি, গ্রেফতার শাহবাজ শরিফ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ২:৫৫ পিএম

সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি ও তার বোন ফরয়াল তালপুরকে সোমবার অর্থ তছরুপের মামলায় দোষী সাব্যস্ত করল পাকিস্তানের দুর্নীতি দমন আদালত। আসিফ আলি জারদারির দলের অবশ্য অভিযোগ, বিরোধী নেতা হওয়ার কারণেই তাকে অপদস্থ করা হচ্ছে।

সোমবার পাকিস্তানের শীর্ষ বিরোধী নেতা, পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন)-এর সভাপতি শাহবাজ শরিফকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। অর্থ তছরুপের অপর একটি মামলায় পাক আদালতে তার জামিনের আর্জি খারিজ হওয়ার পরেই দুর্নীতি দমন কমিশনের অফিসাররা নওয়াজ শরিফের ভাই শাহবাজ শরিফকে গ্রেফতার করেছেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পদত্যাগ দাবি করে আগামী অক্টোবরে প্রতিবাদ কর্মসূচিতে শামিল হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিরোধীরা। রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, বিরোধীদের সঙ্ঘবদ্ধ কর্মসূচি ভেস্তে দিতেই দুর্নীতির মামলাকে সামনে রেখে পরিকল্পিত ভাবে এই ধরপাকড় শুরু হয়েছে। পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারির বিরুদ্ধে এই মামলায় অভিযোগ ছিল, ভুয়া অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে তিনি এবং তার বোন বেআইনি ভাবে সম্পদ বাড়িয়েছেন। অর্থ তছরুপ করেছেন।

দুর্নীতির মামলায় ওমানি গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান আনোয়ার মজিদ ও তার ছেলে আব্দুল গনি মজিদও এদিন দোষীসাব্যস্ত হয়েছেন। অভিযুক্তরা তাদের বিরুদ্ধে আনা চার্জশিটের বিরোধিতা করে আবেদন করেছিলেন। দাবি, করেছিলেন তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সত্য নয়। কিন্তু, আদালতে তাদের আবেদন গ্রাহ্য হয়নি।

এর আগে ৯ সেপ্টেম্বর (বুধবার) তোশাখানা রেফারেন্স নামে অপর এক মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট ও পাকিস্তান পিপল’স পার্টির (পিপিপি) কো-চেয়ারম্যান আসিফ আলি জারদারি ও প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানিকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। একই মামলায় দোষী সাব্যস্ত করে পলাতক ঘোষণা করা হয় প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকেও। রায় ঘোষণার সময় পাক আদালত নওয়াজ শরফিকে এক সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণের সময়সীমা বেঁধে দেয়। ওই মামলায় পাক শিল্পপতি আনোয়ার মাজিদ ও আবদুল গনি মাজিদও দোষীসাব্যস্ত হন। রায়ে মোট পাঁচ জনকে দোষী ঘোষণা করে রায় দেয় ইসলামাবাদের আদালত (ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্ট)। তবে জারদারি ও গিলানি-সহ সকলে নিজেদের নির্দোষ বলে দাবি করেন। এদিকে, আত্মসমর্পণের আদেশ বাতিল করতে ইসলামাবাদ হাইকোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করেছেন নওয়াজ শরিফ। বর্তমানে তিনি চিকিৎসার জন্য লন্ডনে রয়েছেন।

এদিন আদালতের রায় ঘোষণার পর পাকিস্তান পিপল’স পার্টির চেয়ারম্যান বিলাবল ভুট্টো-জারদারি বলেন, বিশ্বজোড়া মহামারীর মধ্যেও পাকিস্তানে বিরোধীরা রাজনৈতিক হেনস্থার শিকার হচ্ছেন। বিলাবল জানান, বিগত দু-বছর ধরে জারদারি ও তালপুর আদালতে হাজিরা দিচ্ছেন।

অন্য দিকে, শাহবাজ শরিফকে সোমবার লাহোর হাইকোর্ট চত্বর থেকে গ্রেফতার করা হয়। ৭০০ কোটির অর্থ তছরুপ মামলায় এদিন হাইকোর্টে শুনানি ছিল। হাইকোর্ট জামিন আর্জি খারিজ করলে পাকিস্তানের তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ছোট ভাইকে গ্রেফতার করা হয়। শাহবাজের বিরুদ্ধে গত সপ্তাহেই এই মামলাটি দায়ের করে ইমরান খান সরকার। অভিযোগ, ২০০৮ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত পাক পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন শাহবাজ শরিফ ৭০০ কোটি টাকা তছরুপ করেছেন। সূত্র: ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন