ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

রোহিঙ্গাদের ফেরত নেবে মিয়ানমার

ড. মোমেনের সাথে টেলিফোনে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কূটনৈতিক সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ১২:০২ এএম

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও স্টেট কাউন্সিলর ওয়াং ই বলেছেন, বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে মিয়ানমারে ফেরত নেওয়া হবে বলে স¤প্রতি মিয়ানমার আবারও চীনকে আশ্বস্ত করেছে। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনের সাথে টেলিফোনে আলাপকালে এ কথা বলেন।
ওয়াং ই বলেন, চীন রোহিঙ্গা বিষয়ে মিয়ানমারের সাথে বিভিন্ন পর্যায়ে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে রোহিঙ্গাদের যাতে ফেরত নেওয়া যায় সে লক্ষ্যে মিয়ানমার কাজ করবে বলে চীনকে তারা জানিয়েছে। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চীনকে মিয়ানমার জানিয়েছে, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়ে তারা বাংলাদেশের সাথে দ্রæত আলোচনা শুরু করবে। মিয়ানমারের নির্বাচনের পর প্রথমত রাষ্ট্রদূত পর্যায়ে এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ, চীন ও মিয়ানমারের মন্ত্রী পর্যায়ের ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে ওয়াং ই ড. মোমেনকে আশ্বস্ত করেন। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়ে ঢাকায় প্রস্তুতিমূলক সিনিয়র কর্মকর্তা পর্যায়ের ত্রিপক্ষীয় বৈঠক দ্রæত শুরু করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

চীনের টিকা বাংলাদেশ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পাবে বলে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অবহিত করেন। করোনা পরবর্তীকালে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে বাংলাদেশ ও চীন একসাথে কাজ করতে আগ্রহী বলে উল্লেখ করেন ওয়াং ই। করোনা মহামারি মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ বিষয়ে বাংলাদেশের প্রতি চীনের সাহায্য অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি। করোনা মহামারির কারণে চীনের যেসব প্রকল্প স্থগিত বা ধীরগতি হয়েছে সেগুলো করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে দ্রæত শেষ করা হবে বলে জানান ওয়াং ই।

পিরোজপুরে চীনের নাগরিক হত্যার বিষয়ে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ হত্যার দ্রæত বিচারের পাশাপাশি চীনের নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের পদক্ষেপের ওপর চীন সরকার আস্থাশীল। এ সময় ড. মোমেন উল্লেখ করেন, এ ঘটনায় প্রধান আসামীসহ দু’জনকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং দ্রæত বিচার নিশ্চিত করা হবে।

করোনা মহামারির কারণে আটকে পড়া চীনে অধ্যয়নরত বাংলাদেশের ছাত্র-ছাত্রী ও গবেষকদের ভিসা নবায়নের বিষয়ে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান ড. মোমেন। এ বিষয়ে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই জানান, বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের চীনে প্রবেশের বিষয়ে সেদেশের সরকার এখনও সিদ্ধান্ত নেয়নি। তবে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হলে বাংলাদেশিদের অগ্রাধিকার তালিকায় রাখা হবে বলে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেনকে আশ্বস্ত করেন। সেক্ষেত্রে ভিসা ও অন্যান্য বিষয়ের দ্রæত সমাধান হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
আলাপকালে এ সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রচিত “আমার দেখা নয়াচীন” বইটি চীনা ভাষায় অনুবাদের উদ্যোগের বিষয়ে চীন সরকারকে ধন্যবাদ জানান ড. মোমেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Hassan Mohammed ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৩ এএম says : 0
ভারত মিয়ানমারকে সাবমেরিন দেয়ার সাথেসাথেই চীমের ভোল্ট চেংজ হয়ে গেছে অথচ ভারত বাংলাদেশে আক্রমণ করার জন্য মিয়ানমারকে সাবমেরিন দেয়ার পরেও আওয়ামীলীগ আর ভারতের স্বামী স্ত্রী সম্পর্ক এখনও রক্তের বন্ধনে আবদ্ধ আছে
Total Reply(0)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ১:৩৭ এএম says : 0
বাংলাদেশের গভীর সমস্যা। বাংলাদেশের গভীর যন্ত্রণা এই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী। আমাদের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কক্সবাজার দেশের একটি বিরাট অংশের পরিবেশ পরিস্থিতির মারাত্মক হুমকির মাঝে। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন রোহিঙ্গাদের পেরত নেবে মায়ানমার। ধন্যবাদ।আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক কুটনৈতিক কৌশলের অনেককিছু জড়িত। বিশ্ব বাস্তবতার প্রেক্ষাপটে স্বীকার করতে হবে একমাত্র চীনের দ্বারা সম্ভব এই বিশালাকার সমস্যার সমাধান। চীন ভারতের যুদ্ধ পরিস্থিতিতেই বাংলাদেশের দক্ষ বিচক্ষন কুটনৈতিক বুদ্ধিদীপ্ত পরিকল্পনা কৌশলে খুব দ্রত চীনের সাথে রাষ্ট্রের নির্বাহী প্রধানের নতুনভাবে যোগা যোগ করতে হতে। এই অন্চলের শান্তি শৃংখলার জন্যে চীনের প্রধান মন্ত্রী ভারতের প্রধান মন্ত্রী সাথে বাংলাদেশ এর প্রধান মন্ত্রী সৌজন্যে সাক্ষাৎ করতে পারেন। এবং উদ্যোগ উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের ফেরত মায়ানমার উপর চীনের প্রভাব বিস্তারের মাধ্যমে পেরত পাটানোর ব‍্যবস্থা। আমাদের প্রধান মন্ত্রী বিশ্বের প্রভাবশালী নেতাদের একজন দক্ষিণ এশিয়াতে অত্যন্ত প্রভাবশালী বাংলাদেশের এক কঠিন পরিস্থিতিতে একমাত্র বঙ্গবন্ধুর কন‍্যা ছাড়া আর কারো পক্ষে সম্ভব নয়। বাংলাদেশের রাজনীতি নিয়ে দেশী বিদেশী ষড়যন্ত্রকারীদের রাষ্ট্রদ্রোহিতার মত কথা প্রতিদিন সোশ্যাল মিডিয়াতে শুনতে পাচ্ছি। পৃথিবীর কোন রাষ্ট্রের নির্বাহী প্রধানের বিরুদ্ধে অমার্জনীয় এবং রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব‍্যাক্তিদের বিরুদ্ধে নানাভাবে উস্কানি মুলক কথাবার্তা সোশ্যাল মিডিয়াতে বলার সাহস পায় কিনা জানিন??বিশ্ব অর্থনীতি মহামারীর কারণে মারাত্মক হুমকির মাঝে মহামারী কঠিন সময়ে দেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করেছেন। বিশ্বে বাংলাদেশের সম্মান মর্যাদা অনেক উচুতে নিয়ে গেছেন। আন্তর্জাতিক গন মাধ্যমে দেশের জাতীয় পত্রিকায় বাংলাদেশের অর্থনীতি ভবিষ্যতের প্রশংসনীয় শিরোনাম হচ্ছে। সকল কিছু কেন্দ্রে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী পরিশ্রম ত‍্যাগ সততা। কিছু মানুষের জন‍্য এই বিশালাকার অর্জন প্রশ্নের সমুর্খীন হচ্ছে। বাংলাদেশের জন্যে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী ভয়াবহ বোঝা মারাত্মক যন্ত্রণা। দেশের প্রিন্ট মিডিয়া ইলেকট্রনিক মিডিয়া আন্তর্জাতিক গন মাধ্যমে আদালতের রায়ে গনহত‍্যার স্বীকার রোহিঙ্গাদের স্বদেশ প্রত‍্যাবর্তনের নতুন ভাবে লিখুন। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী গুরুত্বপূর্ণ ব‍্যাক্তি মায়ানমার সাথে বলে বলেছেন। সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। বাংলাদেশ কে। কুটনৈতিক ভাষা"""" খোলামেলা বলা উচিৎ নয়। আমেরিকা চীন ভারত জাপান বিশ্ব মোড়লদের চোখ বাংলাদেশে।কৌশলের মাঠে আন্তর্জাতিক অনেক কিছুই জড়িত রাষ্ট্রের দক্ষ কুটনৈতিক বিচক্ষন বিজ্ঞ জনরা রাষ্ট্রের নির্বাহী প্রধানের সাথে জরুরী আলোচনা করুন। ইনশাআল্লাহ সমাস‍্যার সমাধান হবে। আশাবাদী বাংলাদেশে নির্বাহী প্রধান রাষ্ট্র প্রধান মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর পক্ষেই সম্ভব। শান্তির পক্ষে বিশাল সমাস‍্যার সমাধান করা।
Total Reply(0)
Abdus Samad Azad ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৪ এএম says : 0
চীনের কথায় মিয়ানমার সকাল সন্ধ্যা উঠে বসে।। একমাত্র চীনই পারে রোহিঙ্গা সমস্যার প্রকৃত সমাধান করতে।। অন্যান্য দেশ বা সংগঠন যতই বলুক সাথে অাছি, পাশে অাছি, সবই তাদের কূট কৌশল।। চীন অাজকে ঘোষনা করলে অাগামীকালই মিয়ানমার রোহিঙ্গা ফিরিয়ে নিতে বাধ্য।। এ মহৎ কাজের মাধ্যমে চীন হতে পারে স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশের পরম বন্ধু।।
Total Reply(0)
রমজান আলি ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৪ এএম says : 0
ওয়াং ই'র সাথে ফোনে আলাপের ব্যাপারে চীন দূতাবাস কর্তৃক প্রকাশিত বিবৃতিতে কোথাও রোহিঙ্গা ইস্যু এবং আটকে পড়া ছাত্রদের ব্যপারে বলা হয়নি
Total Reply(0)
Md. Al-Imran Abir ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৫ এএম says : 0
শুধু আশ্বাস আর আশ্বাস, কাজের বেলায় কিছুই নাই।
Total Reply(0)
Istiak Moni ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৫ এএম says : 0
রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র্রনীতি ব্যর্থ। সরকারের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ব্যর্থতার মধ্যে অন্যতম কারন বন্ধুরাষ্ট্র ইন্ডিয়ার অসহযোগিতা। গতকালের রোহিঙ্গার দাতাগোষ্ঠির সম্মেলনেও তারা অনুপস্থিত ছিলো। আবার তারা মিয়ানমারকে সবমেরিনও দিছে। তাই ভারতের ব্যাপারে বাংলাদেশকে সতর্ক হওয়া জরুরী।
Total Reply(0)
Kazi Rony ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৫ এএম says : 0
চটকদার অহংকারী ফকিন্নি ভারতের বলয় থেকে বের হয়ে বাংলাদেশ বৃহত্তর চীনের সাথে বন্ধুত্ত করে এগিয়ে যাবে বলে আমাদের বিশ্বাস...! শুভকামনা
Total Reply(0)
Sayed Mohammed ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৩:০৬ এএম says : 0
এই সমস্যার সমাধান সম্ভব একমাত্র চীনের সহায়তায়, দ্বীতিয় আর কোন রাস্তা নেই, বাংলাদেশের উচিত চীনকে কাছে টানা....মিয়ানমার বাধ্য হবে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে, প্রযুক্তি দিয়ে চায়না কোম্পানি সারা এশিয়াকে বদলে দিচ্ছে......
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন