ঢাকা সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

রোগী ফেলে চিকিৎসক ও ক্লিনিক মালিকের পলায়ন

ভুল চিকিৎসায় মা ও শিশুর মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ১৯ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নড়াইল জেলা সংবাদদাতা
নড়াইলের লোহাগড়ায় ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় মা ও গর্ভের শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার প্রাণ কেন্দ্র লক্ষèীপাশা মা সার্জিক্যাল ক্লিনিকে। এ সময় রোগী ফেলে রেখে চিকিৎসক ও ক্লিনিক মালিক পালিয়ে যান। স্বজনদের আহাজারিতে উত্তেজিত জনতা ক্লিনিক ঘেরাও করেন। নিহতের পরিবার জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কাশিপুর ইউপি’র শাহবাজপুর গ্রামের দিনমুজুর রাম গোপাল পালের স্ত্রী তিন সন্তানের জননী অঞ্জনা পাল (৪২) গর্ভবতী অবস্থায় সিজার হওয়ার জন্য লক্ষèীপাশা মা সার্জিক্যাল কিèনিকে ভর্তি হন। লোহাগড়া মর্ডান ডায়াগনিষ্টিক সেন্টারের ডাক্তার ডেভিড তন্ময় বিশ্বাস দুপুরে ওই রোগীর সিজার করা জন্য অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে এনেসথেশিয়া ইনজেকশন পুশ করে। পরে ওই ডাক্তার অঞ্জনা পালের শরীরে অস্ত্রপচার চালালে তার দেহ থেকে কালো রক্ত বের মৃত্যু বরণ করে। এ সময় মায়ের গর্ভেই শিশুর মৃত্যু হয়। এ ঘটনা দেখে ডাক্তার ও ক্লিনিক মালিক জাহাঙ্গীর শেখ দ্রুত অপারেশ থিয়েটারে রোগী ফেলে পালিয়ে যায়। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে নিহতের আত্মীয়-স্বজন ও উত্তেজিত জনতা ক্লিনিক ঘেরাও করে। নিহত অঞ্জনা পালের বোন নমিতা সাংবাদিকদের বলেন, মেয়াদ উত্তীর্ণ এনেসথেশিয়া ইনজেকশন পুশ করার কারণেই আমার বোনের মৃত্যু হয়েছে। ডাক্তার ও ক্লিনিক মালিক দীর্ঘ ১ ঘন্টা অপারেশ থিয়েটারে রোগী রেখে আমাদের মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে অহেতুক সময় ক্ষেপন করতে থাকে। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন