বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

ব্রিজ না থাকায় হাজার হাজার মানুষের দুর্ভোগ

প্রকাশের সময় : ২৭ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

পঞ্চগড় জেলা সংবাদদাতা

পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার বড়শশী ইউনিয়নের আউলিয়াঘাটে করতোয়া নদীর ওপর স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৫ বছরেও সেতু নির্মাণ করা হয়নি। ফলে পার্শ্ববর্তী ডোমার উপজেলার চিলাহাটীসহ অপরাপর অন্তঃজেলা যোগাযোগ সহজতর হচ্ছে না। এজন্য এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরে সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছে। সেতু না হওয়ায় এই ঘাট দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। মাড়েয়া-বড়শশী সড়কে আউলিয়াঘাট নামক স্থানে করতোয়া নদীতে শুধু একটি ব্রিজের অভাবে উপজেলা সদরের সঙ্গে বড়শশী ইউনিয়নের সরাসরি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। উপজেলা সদর থেকে বড়শশী ইউনিয়নের দূরত্ব ১০ থেকে ১২ কিলোমিটার মাত্র। একটি ব্রিজের অভাবে ওই ইউনিয়নের ২০ হাজার মানুষকে ৫০ কিলোমিটার পথ ঘুরে জেলা সদর হয়ে উপজেলা সদরে যাতায়াত করতে হয়। এলাকাবাসী জানায়, এখানে সেতু নির্মাণ ইউনিয়নবাসীর প্রাণের দাবি। এই ঘাটের পশ্চিমপাড়ে উপজেলা সদর আর পূর্বপাড়ে বড়শশী ইউনিয়ন। করতোয়া নদীর ওপর ব্রিজ নির্মাণের জন্য ইউনিয়নবাসী দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছে। কিন্তু স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৫ বছরেও তাদের সে দাবি পূরণ হয়নি। সেখানে গিয়ে দেখা গেছে, আউলিয়াঘাটের দু’দিকের সড়ক ইতোপূর্বে পাকা করা হয়েছে। উপজেলা সদর থেকে মাড়েয়া এবং বড়শশী থেকে আউলিয়া ঘাট পর্যন্ত এলজিইডি সড়ক পাকা করেছে। আউলিয়া ঘাট দিয়ে একটি ছোট নৌকায় লোকজন পারাপার হচ্ছে। জেলা পরিষদ প্রতিবছর নিলাম ডাকের মাধ্যমে পারাপারের জন্য নির্বাচন করে থাকে। তবে এই নৌকায় যাতায়াত করতে সময় অপচয়সহ ভারী মালামাল পারপার কঠিন হয়ে পড়ে। এতে কৃষকরা তাদের ফসল সহজে বাজারে নিতে পারে না। বড়শশী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম জানান, তিনি চেয়ারম্যান থাকাকালীন স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলীর কাছে লিখিতভাবে আবেদন করেছিলেন। স্কুল শিক্ষক শামীম জানান, বড়শশীবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি আউলিয়াঘাটে সেতু নির্মাণ করা। বোদা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সফিউল্লাহ জানান, সেতু নির্মাণের জন্য উপজেলা পরিষদের সভায় একাধিকবার প্রস্তাব করা হয়েছে। পাশাপাশি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর পঞ্চগড়ের সহকারী প্রকৌশলী রেজাউর রহমান জানান, এ এলাকায় বৃহৎ ব্রিজ নির্মাণের প্রকল্প এটি। তবে আগামীতে বাস্তবায়ন হতে পারে। আউলিয়া ঘাটে ৪-৫শ’ মিটার দীর্ঘ ব্রিজ প্রয়োজন। এ জন্য ২০-২৫ কোটি টাকার প্রয়োজন। বড়শশী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা ময়ূর আলী বলেন, ২০১৭ সালে এটি হয়তো একনেকে উঠতে পারে। তিনি আরো বলেন, এই ব্রিজ নির্মাণ হলে জেলার অভূতপূর্ব উন্নয়ন ঘটবে যা বলার অপেক্ষা রাখেনা। এপার অংশে মাড়েয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা শিক্ষক আবু আনছার রেজাউল করিম বলেন, ইতোপূর্বে ব্রিজ নির্মাণের জন্য সোয়েল টেস্ট হয়েছে। হয়তো শীঘ্রই এটি হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। এটি সময়ের দাবি। ব্রিজটি নির্মাণ হলে পঞ্চগড়সহ বোদা আটোয়ারী জেলার পাঁচ উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থায় বড় পরিবর্তন আসবে। সেই সাথে সড়ক-মহাসড়কে যানচলাচল যানজটমুক্ত হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন