ঢাকা, সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭ আষাঢ় ১৪২৮, ০৯ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সরকারের ব্যর্থতা-অযোগ্যতায় করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ: মির্জা ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৫৫ পিএম

ফাইল ছবি


সরকারের উদাসীনতা, ব্যর্থতা ও অযোগ্যতার কারণে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে করোনা পলিসি নির্ধারণে সরকারের কি রকম দ্বিচারিতা। একদিকে তারা বলছে লকডাউন দিচ্ছি, অন্যদিকে সমস্ত গণপরিবহন, শপিংমল-দোকানপাট সব খুলে দিচ্ছে। অর্থ্যাৎ তাদের উদাসীনতা, ব্যর্থতা ও অযোগ্যতার কারণে আজকে করোনা এই অবস্থায় গিয়ে পৌঁছেছে। শনিবার জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা প্রতিদিন বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে যে সমস্ত কথা শুনতে পাই. এগুলো রীতিমত এলার্মিং। একটা জাতি আজকে বিপদের সম্মুখীন হয়ে গেছে এবং বলা হচ্ছে যে, মে মাসের মধ্যে প্রতিদিন নয়‘শ থেকে এক হাজার লোক মারা যাবে। দেশের হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যখাতের চরম দুরাবস্থার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, আজকে টেস্টের কোনো ব্যবস্থা নেই, হাসপাতালগুলোতে সাধারণ বেড, আইসিইউ বেড নেই। কোনো রকম কোন সুব্যবস্থা নেই। দুর্ভাগ্য আমাদের আজকে যখন করোনা ভয়াবহ রুপ ধারণ করেছে, গতবছর থেকে যখন আগ্রাসন শুরু হয় তখন থেকেই সরকার কোনো কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন করেনি। যার ফলে এবার দ্বিতীয় টেউ জনগণের জীবনকে, জীবিকাকে সম্পূর্ণ বিপন্ন করে ফেলেছে।

ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আজকে ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে, সেই ভ্যাকসিনের যে সাপ্লাইটা আসবে সে সম্পর্কে কোনো নিশ্চয়তা তারা জনগণের সামনে, দেশের সামনে, জাতির সামনে তুলে ধরতে পারছে না। তারা বলছে যে, আমরা চীন ও রাশিয়ার থেকে ভ্যাকসিন আনার চেষ্টা করছি। কিন্তু এখন অনেক দেরী হয়ে গেছে।

মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস সরকার বিকৃত করছে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, প্রবাসী সরকার মুক্তিযুদ্ধে বিরাট ভুমিকা পালন করেছিলো এবং মুক্তিযুদ্ধের প্রধান নেতৃত্ব যিনি দিয়েছিলেন তার কথা তারা (আওয়ামী লীগ সরকার) বেমালুম চেপে যায়। দেখবেন তাজউদ্দিন সাহেবের (তাজউদ্দিন আহমেদ) নাম উচ্চারণ হয় না, রব সাহেবের (আসম আবদুর রব) নাম একবারও উচ্চারণ হয়না, শাহজাহান সিরাজ সাহেবের নাম উচ্চারণ হয় না এবং যিনি স্বাধীনতার ঘোষণা দিলেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান সাহেব তার কোনোদিন উচ্চারণ হয় না। আজকে আমাদের প্রজন্মকে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস, প্রকৃত ইতিহাস জানাতে হবে।

তিনি বলেন, এই সরকার দেশের মানুষের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে, তাদের অধিকারগুলো হরণ করেছে। সেজন্য আজকে প্রয়োজন জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করতে হবে। সকল রাজনৈতিক ও মতকে এক হয়ে এই জনবিচ্ছিন্ন, গণবিচ্ছিন্ন, গণতন্ত্রবিনাসী মানুষের অধিকারগুলোকে ধ্বংস করে দিয়ে একটা ভয়াবহ রকমের ফ্যাসিবাদী ব্যবস্থা তৈরি করেছে, তাদেরকে সরিয়ে জনগণের একটি সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তার জন্য যেটা দরকার জনগনকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, রাজনৈতিক দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, ব্যক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, দেশপ্রেমিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এর কোনো বিকল্প নাই।

জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব বলেন, আজকে সেই ১০ এপ্রিল। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস কুক্ষিগত করেছে আওয়ামী লীগ। আমরা মুক্তিযুদ্ধের সময় দেখেছি পাকিস্তানের ভিত্তিকে সমর্থন ও কাজ করার জন্য একটা অংশ অপ্রত্যক্ষভাবে তৎকালীন পাকিস্তানি সরকারকে টিকিয়ে রেখেছে। আজকেও যার যার অবস্থান থেকে ঐক্যবদ্ধভাবে বৃহত্তর ঐক্যের মাধ্যমে দল-মত-জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে অসা¤প্রদায়িক এবং গণতান্ত্রিক চেতনা, সাম্য, মানবিক মূল্যবোধ ও সামাজিক ন্যায় বিচার-এসবের ভিত্তিতে এক হয়ে কর্তৃত্ববাদী শাসনব্যবস্থাকে যদি আমরা না সরাতে পারি তাহলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের সমস্ত অর্জনে বিফলে চলে যাবে। আসুন সবাই এই লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হই।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির উদ্যোগে স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনে ‘প্রবাসী সরকারের ভূমিকার ও প্রজাতন্ত্র দিবস পালন উপলক্ষে এই ভার্চুয়াল আলোচনা হয়।

জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রবের সভাপতিত্বে ও শহিদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপনের পরিচালনায় আলোচনা সভায় নাগরিক ঐক্যে আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জেএসডির সানোয়ার হোসেন তালুকদার, এসকেএম আনিসুর রহমান, সিরাজ মিয়া, তানিয়া রব, ডাকুস সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। বিদেশে থাকায় অংশগ্রহন করতে না পারায় প্রবাসী সরকারের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদের ছেলে সোহেল তাজের পাঠানো লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ব্যারিস্টার ফারা খান।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
।।শওকত আকবর।। ১০ এপ্রিল, ২০২১, ৯:৩০ পিএম says : 0
খুলনা শহীদ হাদিস পার্কে একবার দাদা ম্যাচ ফ্যাক্টরি খুলে দেওয়ার দাবিতে সমাবেস করছিলাম।লোকজন নাই।অল্পকয়েকজন।কি বক্তৃতা করবো?তাই একটা গান ধরলাম *দ্যাশ দরদি দেশোবাসি তোমরা সবাই আসো ধাইয়া,দ্যাশের দুর্গতি আর কত দ্যাখবা চাইয়া*কিছু লোকজন এলো।পর দিন পত্রিকায় লিখলো জনসমাবেসে ১১জন।গায়ক যে বক্তাও সে।নামটা লিখেছিল।
Total Reply(0)
।।শওকত আকবর।। ১০ এপ্রিল, ২০২১, ১১:২৭ পিএম says : 0
বামপন্থি রাজনৈতিক দলে সম্পূকতা ছিল আমার।ট্রেড ইউনিয়ান করেছি।তবে কখনো আদর্শিক রাজনিতীর বাহিরে যাইনি যখন দেখছি দল শ্রেনি পেশার মানুষের স্বার্থের বাইরে গিয়ে নিজের স্বার্থ হাসিল করছে।তখনই নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি।
Total Reply(0)
।।শওকত আকবর।। ১০ এপ্রিল, ২০২১, ১১:৪৬ পিএম says : 0
আমার ২৮ বছরের রাজনিতীর মাঠ খুলনা।জানিনা কেমন আছে খুলনার মানুষ। যাওয়ার মত সমায় হয়না।আজ খুব বেশী মনে পরে খালিশপুর পাটকল গুলোর কথা।লোকসানের অজুহাতে সব বন্ধকরে দিয়েছে শুনেছি খালিশপুর মৃর্তপুরীতে পরিনত হয়েছে।এ শীল্প বাচাঁনোর আন্দলনে আমি সব সমায় সামনের কাতারে ছিলাম।আজও খালিশপুরের প্রতিটি ইট পাথর বালুকনা স্বাখ্খি হয়ে আছে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন