রোববার, ০৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

মহানগর

কে একুশের চেতনা ভূলুণ্ঠিত করেছে, জনগণ তার বিচার করবে : মির্জা ফখরুল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৬:৩৩ পিএম

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গতকাল (সোমবার) ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছিলেন, আওয়ামী লীগ সরকার একুশের চেতনাকে সম্পূর্ণভাবে ভূলুণ্ঠিত করেছে এবং মুক্তিযুদ্ধের যে লক্ষ্য ছিল তা ধ্বংস করে দিয়েছে। কথাটি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের ‘গায়ে খুব লেগেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন ফখরুল। তিনি বলেছেন, জনগণ বিচার করবে কে (ভূলুণ্ঠিত) করেছে আর কে করেনি।

আজ মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে জাতীয়তাবাদী কৃষক দল আয়োজিত ‘ফসলের মাঠে কৃষকের আত্মহত্যায় ফ্যাসিবাদী শাসনের নির্মম বাস্তবতায় দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি’ শীর্ষক এক প্রতিবাদ সভায় তিনি এ কথা বলেন। মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার আগে বলেছিল ১০ টাকা কেজিতে চাল খাওয়াবেন, বিনা পয়সায় সার দেবে এবং ঘরে ঘরে চাকরি দেবে। আমাদের মানুষও ভেবেছিলেন একটা পরিবর্তন আসবে। তাই সেদিন কিছু মানুষ নৌকায় ভোট দিয়েছিলেন। কিছুদিন পর তারা টের পেলেন একেবারে ভাঁওতাবাজি, প্রতারণা। আজ মানুষকে বেঁচে থাকার জন্য সংগ্রাম করতে হচ্ছে। নিঃশ্বাস নেওয়ার জন্য সংগ্রাম করতে হচ্ছে। তারা এই সরকার থেকে মুক্তি চায়।

তিনি বলেন, জনগণের সঙ্গে রাষ্ট্রের একটা চুক্তি থাকে। আমাদের সংবিধানে আছে ৫ বছর পর পর এখানে নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনে মধ্য দিয়ে জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা আসবে, যাদের জবাবদিহিতা থাকবে। সেই জবাবদিহিতা এখন আর আর নেই। বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার মতো লোক দিয়েই দেশের নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন হবে। সার্চ কমিটি যাদের দিয়ে করেছে তারা প্রত্যেকেই তাদের লোক। তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন সরকার দেশের নির্বাচন ব্যবস্থাকে ভেঙে তছনছ করে দিয়েছে। এখন তারা আবার নির্বাচিত হওয়ার জন্যে তাদের মতো করে ইলেকশন কমিশন গঠন করবে। সে জন্য সার্চ কমিটি গঠন করেছে। আইনও তৈরি করেছে। সবই জনগণকে বোকা বানানোর জন্য।

কৃষক শফিউদ্দিনের চলে যাওয়ায় গভীর শোক প্রকাশ করে মির্জা ফখরুল বলেন, যেসব আওয়ামী সন্ত্রাসদের কারণে তার এই চলে যাওয়া সেইসব সন্ত্রাসদের প্রতি তীব্র ঘৃণা প্রদর্শন করছি। বর্তমানে ভোটারবিহীন সরকারের যে দুঃশাসন, নৈরাজ্য, ফ্যাসিবাদের যে আগ্রাসন তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে শফিউদ্দিনের এই আত্মহনন। প্রতিবাদ সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষক দলের সভাপতি কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুল প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps