ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

গোপালগঞ্জে পলিথিন পোড়ানো ধোঁয়ায় ১৭ শিক্ষার্থী অসুস্থ

প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

গোপালগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা : গোপালগঞ্জে পলিথিন পোড়ানো ধোঁয়ায় ১৭ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে গোপালগঞ্জ শহরতলীর হাজী নাদের আলী ও সাদের আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণিতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে গোপালগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. অসিত কুমার মল্লিকের নেতৃত্বে একটি মেডিকেল টিম স্কুলে গিয়ে অন্য শিক্ষার্থীরা যাতে অসুস্থ হয়ে না পড়ে সেজন্য প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। এ ঘটনায় স্কুল ছুটি দিয়ে দেয়া হয়। অসুস্থ’ ১৭ শিক্ষার্থীর মধ্যে খাদিজা, পূজা ঢালী, সুমাইয়া, ডলি, মৌসুমী ঢালী, জান্নাতি, অন্তিকা ও ফারজানাকে গোপালগঞ্জ আড়াইশ’ বেড জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। অসুস্থ লিজা, নিশি, জ্যোৎ¯œা, রিমা, প্রমা, সেতু ঢালী, তিথি, তিশা, ঋতুমণি দুপুরে গোপালগঞ্জ আড়াইশ’ বেড জেনারেল হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। হাজী নাদের আলী ও সাদের আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী খাদিজার মা হেনা বেগম বলেন, স্কুলের পাশে পলিথিন পোড়ানো হয়। পলিথিনের ধোঁয়া ক্লাসের মধ্যে প্রবেশ করার পর পরই খাদিজার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। একপর্যায়ে বমি বমি ভাব অনুভূত হয়ে খদিজা বেঞ্চের উপর ঢলে পড়ে। তার দেখাদেখি অন্যান্য শিক্ষার্থীরাও অসুস্থ হয়ে পড়ে। হাজী নাদের আলী ও সাদের আলী মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক স্বপন কুমার গাইন জানান, শিক্ষার্থীরা গণহারে অসুস্থ হয়ে পড়লে ফায়ার সার্ভিসের অ্যাম্বলেন্সকে খবর দেই। তারা তাদের গাড়িতে করে ১৭ শিক্ষার্থীকে গোপালগঞ্জ আড়াইশ’ বেড জেনারেল হ্সাাপাতালে নিয়ে আসে। ১৭ জনের মধ্যে ৮ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। ৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। এ ঘটনায় স্কুল ছুটি দেয়া হয়। গোপালগঞ্জ আড়াইশ’ বেড জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ড. তপন মজুমদার বলেন, পলিথিন পোড়ানো ধোঁয়া শ্রেণিকক্ষে ঢোকে। এ ধোঁয়ায় শিক্ষার্থীদের শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। পরে তারা অসুস্থ হয়ে পড়ে। অনেকে আতঙ্কিত হয়েও অসুস্থ হয়ে পড়ে। গোপালগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. অসিত কুমার মল্লিক বলেন, আমরা আতঙ্ক প্রশমনে স্কুলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের চিকিৎসা দেই। এ কারণে নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি। এটি মাস হিস্টেরিয়া। মারাত্মক কোনো রোগ নয়। আক্রান্তরা সবাই মেয়ে। মানসিক দুর্বলতার কারেণে মেয়েরা এ রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। একটু বিশ্রাম নিলেই এ রোগ ভালো হয়। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন