ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

যে কারণে গ্রেফতার হলেন আত্রাই উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০২১, ৬:১৪ পিএম

নওগাঁর আত্রাই উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার সোয়েবকে কুপিয়ে হাত এবং পায়ের রগ কাটার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। সোয়েবের স্ত্রী সাবরিনা সুলতানা ঝর্ণা বাদী হয়ে সোমবার সকালে থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে সোমবার সকালে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, হত্যার উদ্দেশে এ হামলা ও হাত পায়ের রগ কর্তনের মূল পরিকল্পনাকারী হিসাবে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম ও মূল হামলাকারী হিসেবে তার ছেলে মির্জা রাব্বীসহ ১২জনের নাম উল্লেখ করে এ মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে নওগাঁ জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এদিকে গুরুতর আহত সরদার সোয়েব বর্তমানে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় পুরো উপজেলায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। আত্রাই থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগমকে মামলায় আসামি করায় তাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর অন্য আসামিদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার নিউ মার্কেটে ঠিকাদারি অফিস কক্ষে ছিলেন সরদার সোয়েব। হঠাৎ দুর্বৃত্তরা সোয়েবের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। বাজারের লোকজন টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজে স্থানান্তর করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই সোয়েবকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন