বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

পাহাড় কেটে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কাপ্তাই (রাঙ্গামাটি) উপজেলা সংবাদদাতা

কাপ্তাই বড়ইছড়ি বাজার এলাকায় চলাচলের রাস্তা, ড্রেন এবং পাহাড় কেটে দখল নিয়ে সীমানা বেড়া দেওয়ার ফলে স্কুল পডুয়া শিক্ষার্থীরা এবং বসবাসরত লোকজনের দুভোগ চরমে। স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ এলাকার লোকজন উক্ত ঘটনা নিয়ে মিমাংসা করার জন্য গেলে বিবাদী গং বিচারকদের হেয় এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বড়ইছড়ি বাজার এলাকায় বসবাসরত আবুল কালাম (ট্রেইলার) দীর্ঘ ৩৫ বছর যাবত খরিদকৃত নিজ জায়গায় বসবাস করে আসছে এবং একই এলাকার বসবাসরত বিবাদী আবুল কালাম (সাবেক আনসার সদস্য) ও তাঁর সহদর মোঃ দুলাল সীমানা নিয়ে আামার সাথে বিাবাদ হলে তাঁরা দু’ভাই সকলের চলাচলের রাস্তা বাঁশ ও বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেয়। এতে করে স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা এবং স্থানীয় বসবাসরত লোকজন দীর্ঘ দেড়মাস যাবত বন্ধ রাস্তা দিয়ে চলাচল এবং সঠিক সময় মসজিদে গিয়ে নামাজ আদায় করতে পাড়ছেনা। আবুল কালাম (ট্রেইলার) স্থানীয় হেডম্যানকে ঘটনাটি জানালে হেডম্যান স্থানীয় ইউপি সদস্য ও সাবেক সদস্য সহ আরো ৫ জনকে ঘটনাস্থলে পাঠালে বিবাদী গং উক্ত ইউপি সদস্যদের গালমন্দ এবং প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে। এ ব্যাপারে বিচারক দীপ্তিময় তালুকদার বাদী হয়ে কাপ্তাই থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন এবং উক্ত বিবাদীগণ স্থানীয় পাহাড় কেটে চলাচলের রাস্তা ও ড্রেন ভরাট করে বস্তা দিয়ে চলাচলের জায়গা দখল করে নেওয়ার অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে অরুন তালুকদার (হেডম্যান) লিখিত অভিযোগ করে বলেন, জোরপূর্বক চলাচলের রাস্তা ও ড্রেন দখল নেওয়া যুক্তিযুক্ত নয় বলে তিনি উল্লেখ করেন। এদিকে বাদী আবুল কালাম (ট্রেইলার) বলেন, জোরপূর্বক চলাচলের রাস্তা, ড্রেন বন্ধ করে দেয়ার ফলে আমার স্কুল পড়ুয়া ছেলে স্কুলে যাতায়াত করতে পাড়ছে না। এবং পাশে বসবাসরত লোকজন কোন আত্মীয়স্বজন প্রয়োজনে বাসায় আসা এবং সঠিক সময় মসজিদে গিয়ে নামাজ আদায় করতেও পাড়ছে না। তাই প্রশাসন সঠিক তদন্তপূর্বক যাতায়াতের রাস্তা খুলে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। এ ব্যাপারে আবুল কালাম (ট্রেইলার) কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন