ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

প্রতিবাদ করায় মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় টুটু বৈদ্য নামের এক মহিলার যন্ত্রণায় গ্রামবাসী অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। তার অনৈতিক কর্মকা-ের প্রতিবাদ করায় মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন এলাকাবাসী। তার স্বামীর নাম সিমন বৈদ্য। তিনি উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের পাইকের বাড়ী গ্রামের বাসিন্দা। সরেজমিন গেলে ওই গ্রামের শ্যামল বৈদ্য, ঠাকুর দাস বিশ্বাস, রতিকান্ত বিশ্বাস, ক্ষিতিশ বিশ্বাস, সুশান্ত বাড়ৈ, বলরাম বিশ্বাস, অসিম বিশ্বাসসহ শতাধিক নারী-পুরুষ জানান, তার স্বামী ঢাকায় থাকেন। টুটু বৈদ্য একা একটি ফাঁকা বাড়িতে থেকে বিভিন্ন পুরুষ ছেলেকে নিয়ে অনৈতিক কর্মকা- করেন। তার এহেন ব্যভিচারী কর্মকা-ে আমরা অতিষ্ঠ এবং এলাকার সামাজিক পরিবেশ হুমকির মুখে। তার এ ধরনের কর্মকা-ের ফলে কয়েকটি সংসার ভেঙে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। আমরা তার হাত থেকে পরিত্রাণ চাই। এলাকাবাসী এ ধরনের কর্মকা-ের প্রতিবাদ করতে গেলে ওই মহিলা অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করেন এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে নিরীহ লোকজনকে হয়রানি করেন। এর আগে তিনি এলাকাবাসীর বিরুদ্ধে কোটালীপাড়া থানায় ও পরে গোপালগঞ্জ বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে শ্লীলতাহানি, মারধর ও ছিনতাইয়ের মামলা করেন। এ ব্যাপারে টুটু বৈদ্যর কাছে তার বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, যারা আমার বিরুদ্ধে বলে তাদের কাছে শোনেন। আমি কী বলব। এ ব্যাপারে টুটু বৈদ্যের স্বামী শিমন বৈদ্যের বক্তব্য পাওয়ার জন্য তার ০১৯৭১৭০৭৯৫৭ নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে তিনি রং নম্বর বলে লাইনটি কেটে দেন। কোটালীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল লতিফ বলেন, মহিলার অনৈতিক কর্মকা- সম্পর্কে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন। আমার দারোগা লিয়াকতকে পাঠানো হয়েছিল। পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন