সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কোথায় গেল সরকারি এত সাহায্য-সহায়তা, দুয়েক জন ছাড়া কেউ সহায়তা পায় নি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০২১, ৯:৩৪ পিএম

সোমবার (১২ জুলাই) বাংলাদেশ অটোরিকশা হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ফেডারেশনটির সভাপতি আবুল হোসাইন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গরিব-শ্রমজীবী মানুষদের খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন, ২/১ জন ছাড়া সেই সহায়তা কেউই পাননি। গত দেড় বছরে করোনা মহামারিতে ১১ লাখ পরিবহন শ্রমিকের মধ্যে দুই/একজন ছাড়া সিংহভাগই এই সহায়তা পায়নি।

তিনি প্রশ্ন রাখেন, তাহলে এতো সরকারি সাহায্য-সহায়তা গেল কোথায়? সংবাদ সম্মেলনে তিনি ৫টি দাবি উত্থাপন করেন। দাবিগুলো হচ্ছে- লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবহন শ্রমিকদের খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা দিতে হবে; পরিবহন শ্রমিকদের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালু করতে হবে; চালক ও তার পরিবারের সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ও টিকা নিশ্চিত করতে হবে; পরিবহন শ্রমিকদের ওপর হয়রানি-নির্যাতন বন্ধ করতে হবে এবং পরিবহন শ্রমিকদের লাইসেন্স গ্রহণে হয়রানি ও দুর্নীতি বন্ধসহ নিয়োগপত্র দিতে হবে।

ফেডারেশন ঢাকা জেলা প্রশাসন, ঢাকা সিটি করপোরেশন, দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে সাহায্যের জন্য আবেদন করেছিল। কিন্তু তারপরও পরিবহন শ্রমিকেরা এখন পর্যন্ত কোনো সরকারি সাহায্য-সহায়তা পাননি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মাওলানা মিরাজ খান, কেন্দ্রীয় নেতা জয়নাল আবেদীন শান্ত, রামপুরা থানার নেতা ছগির হোসেন, বেলাল হোসেন, মোহাম্মদপুর থানার নেতা মো. ইব্রাহিম, কোতোয়ালি থানার নেতা মো. উজ্জল প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Dadhack ১২ জুলাই, ২০২১, ১০:০৫ পিএম says : 0
চরম দুর্নীতিবাজরা দেশ শাসন করে সেই জন্য তো আজ মানুষ আমাদের দেশে গরিব. বাংলাদেশ গরীব রাষ্ট্র না. বাংলাদেশ টাকার খনি. এই দুর্নীতিবাজ লোক গুলো লক্ষ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে এই টাকা যদি দেশে থাকত তাহলে কোন একটা লোক দরিদ্র থাকত না.....এই দুর্নীতিবাজরা যখন করবে তখন তো কোন টাকা বাড়ি গাড়ি কোনকিছুই কবরে যাবে না.......
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন