বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

পরীমনির অশোভন ছবি পোস্টঃ কড়া জবাব দিলেন সোহেল তাজ

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

সম্প্রতি ফেসবুকে সিগারেট হাতে প্রায় অর্ধনগ্ন অবস্থায় পরীমনির ছবি আপলোড করা নিয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছিলেন, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ। তিনি লিখেছিলেন, একজন সেলিব্রিটির কাছ থেকে এ রকম অশোভন আচরণ কাম্য নয়, আমাদের ছেলে-মেয়েদের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। তার এই পোস্টের পর পক্ষ-বিপক্ষে নানা বিতর্ক হয়েছে। সোহেল তাজের ওই স্ট্যাটাসের বিপরীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক, লেখক আসিফ নজরুল তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে কয়েক দিন আগে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘পরীমনি সিগারেট খাচ্ছে বা আপত্তিকর কথা বলছে সেটি নিয়ে সোহেল তাজকে সমালোচনামূখর দেখলাম। এটি উনি করতেই পারেন। কিন্তু যারা দেশই গিলে খাচ্ছে বা ক্ষমতায় থাকার সুযোগে আরো বহুগুণ অশালীন কথা বলছে তাদের বিরুদ্ধে সমালোচনা নেই কেন উনার? সোহেল তাজ, আপনি মহান নেতা তাজউদ্দিন সাহেবের পুত্র। পরীমনি না, আরো বড় ক্যানভাসের দিকে তাকান। নিজের শরীর শুধু না, দেশ গড়ার চিন্তা করেন।’ সোহেল তাজ তার অবস্থান ব্যাখ্যা করে আবার একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। স্ট্যাটাসে তিনি বলেছেন, একজন মানুষের অধিকার আছে নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী ব্যক্তিগত জীবনযাপনের। আমি ব্যক্তি স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। কে কী পোশাক পড়লো বা ধূমপান করলো কী না করলো এগুলো শুধু নারী স্বাধীনতাই না, বরং ব্যক্তি স্বাধীনতার কাতারে পড়ে। আর তাই আমি মনে করি যে, একজন মানুষের (নারী বা পুরুষ) অধিকার আছে তার নিজের পছন্দ মতো তার ব্যক্তিগত জীবন পরিচালনা করার। সমস্যা হচ্ছে, আমরা উচ্ছৃঙ্খল আচরণকে নারী/ব্যক্তি স্বাধীনতার সঙ্গে মিলিয়ে ফেলি। বাংলাদেশে যখন মাদক একটি বিরাট সমস্যা, যখন সোশ্যাল মিডিয়ার অ্যাডিকশনের কারণে ছেলে-মেয়েরা মানসিকভাবে আক্রান্ত হচ্ছে (ডিপ্রেশন) তখন নতুন প্রজন্মের জন্য প্রয়োজন ইতিবাচক অনুপ্রেরণা, যা আমরা পাই অনুকরণীয় ব্যক্তিত্বদের জীবন থেকে। আর সেটা কখনোই সম্ভব হবে না যদি কিছু উচ্ছৃঙ্খল সেলিব্রিটিরা তাদের বেপরোয়া ব্যক্তিগত জীবনধারা তাদের সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের নতুন প্রজন্মের ওপর চাপিয়ে দেয়। তিনি বলেন, আমাদের নতুন প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে হবে এমন ব্যক্তিত্বদের, যারা তাদের দৃঢ়চেতা মনোবল এবং আত্মবিশ্বাসকে কাজে লাগিয়ে সকল প্রতিক‚লতা পার করে শুধু নারী অধিকারের লড়াই করেন নাই বরং সকল মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন- উনাদের ইতিবাচক কর্মের মধ্যে রেখে গেছেন নতুন প্রজন্মের জন্য অনুপ্রেরণা।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
MILON ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৩:৫৬ এএম says : 0
PORIMONI SHOULD COME TO USA FOREVER. SO NOBODY WILL BOTHER HER WHETHER SHE SMOKE OR NOT. SOHEL TAJ IS LIVING IN USA NOW. BUT IT SEEMS HE IS LIVING IN BANGLADESH. IMPROVE YOUR MENTALITY MR. SOHEL TAJ. THANKS
Total Reply(0)
Billal Hosen ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:১৫ এএম says : 0
জনাব আসিফ স্যার, আপনার মতামত টা ভালো হয় নি।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন