রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ক্রিকেটে বিস্ময় শিশু সাদিদের দায়িত্ব নিলেন বরিশালের জেলা প্রশাসক

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ১২:৫৬ পিএম

ক্রিকটের বরপুত্র হিসাবে খ্যাত শচীন টেন্ডুলকারের আশির্বাদপ্রাপ্ত বিষ্ময়কর শিশু বরিশালের আসাদুজ্জামান সাদিদের দায়িত্ব নিলেন জেলা প্রশাসক মো. জসীম উদ্দীন হায়দার। জেলা প্রশাসক সরকারি বাসভবনে শিশুটি সাদিদকে শুক্রবার রাতে আমন্ত্রন জানিয়ে তার লেখাপড়া ও ক্রিকেট প্রশিক্ষণের যাবতীয় খরচ বহনের দায়িত্ব নেয়ার কথা জানিয়েছেন। এসময় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক আলমগীর খান আলো’ও উপস্থিত ছিলেন।
শিশু সাদিদ তার মামার সাথে জেলা প্রশাসকের সরকারি বাসভবনে গেলে আভ্যর্থনা জানান জেলা প্রশাসক নিজে। তিনি শিশুটির কাছে ক্রিকেট নিয়ে তার স্বপ্নের কথা শোনেন। সাদিদ জানায়, সে ‘সাকিব আল হাসানের মতো অল রাউন্ডার হতে চায়। জাতীয় দলের খেলোয়ার হতে চায় সে’।
জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার জানান, ‘সাদিদের বোলিং প্রতিভা বরিশাল তথা বাংলাদেশকে বিশ্বের কাছে অন্য রকম পরিচিতি দিয়েছে, বাংলাদেশি হিসেবে আমি এ নিয়ে গর্ববোধ করছি। আমার চেনা সবাইকেই দেখছি এ নিয়ে গর্ব করতে। সে যেন আনন্দ নিয়ে খেলতে পারে, সেই পরিবেশ তৈরি করে দিতে হবে। মনের আনন্দে নিয়মিত খেলতে থাকলে তার জাদুকরি বোলিং আরও ক্ষুরধার হবে। ওর যতœ নিতে হবে। উপযুক্ত যতেœর অভাবে যেন ওর হাতের জাদু হারিয়ে না যায়। সাদিদের প্রতিভা ধরে রাখতে সব ধরনের সহায়তা দেয়া হবে’ বলেও জানান তিনি।
বরিশাল নগরীর উলালঘুনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্র সাদিদ বরিশাল নগরীর ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মহাবাজ এলাকায় মায়ের সঙ্গে নানা বাড়িতে থাকে। গত ১০ অক্টোবর ফেসবুকে ভাইরাল হয় সাদিদের লেগস্পিন বোলিংয়ের একটি ভিডিও ক্লিপ। যা পৌঁছে যায় কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকারের কাছে। টেন্ডুলকার তার ফেসবুক পেজে ভিডিওটি আপলোড করে ভারতের এ ব্যাটিং ঈশ্বর লিখেছেন, ‘ওয়াও! শচীনের পোস্টের নিচে মন্তব্য করেন এ সময়ের অন্যতম সেরা লেগ স্পিনার রশীদ খানও। তিনিও প্রশংসা করেছেন সাদিদের দক্ষতার। এমনকি অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্নও বাদ যাননি। সাদিদের লেগস্পিন বোলিংয়ের ভিডিও নিজের টুইটারেও পোস্ট করেছেন শেন ওয়ার্নও।
অন্যদিকে শচীন টেন্ডুলকার সাদিদের ভিডিওটি ফেসবুকে পোস্ট করার পর বরিশালের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সরব হয়ে আনন্দ প্রকাশ করেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন