বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

পারাপার অপেক্ষায় দৌলতদিয়ায় শত শত যানবাহন

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০৪ এএম

দক্ষিণ বঙ্গের প্রবেশদ্ধার খ্যাত রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া পাটুরিয়া নৌরুটে নদী পার হতে আসা যানবাহনের দীর্ঘ সারি । এত করে বৃষ্টির মধ্যে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে চালক ও যাত্রীদের।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটের জিরো পয়েন্ট হতে ঢাকা খুলনা মহাসড়কে বাংলাদেশ হ্যাচারী পর্যন্ত প্রায় চার কিলোমিটার জুরে যাত্রীবাহী বাস ও পন্যবাহী ট্রাকের যানজট সৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে এক সারিতে যাত্রীবাহী বাস ও কাঁচা মাল ভর্তি ট্রাক তিন শতাধিক অপর সারিতে রয়েছে দুই শতাধিক অপচনশীল পন্যবাহী ট্রাক নদী পারের অপেক্ষায় রয়েছে।
এদিকে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবের কারণে গত কয়েকদিন ধরে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়ছে হচ্ছে নদী পার হতে আসা যাত্রীদের। বিশেষ করে বৃষ্টির মধ্যে নারী ও শিশুদের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ঘাটের ওপর চাপ কমাতে ফেরি ঘাটে জিরো হতে ১২ কিলোমিটার অদুরে গোয়ালন্দ মোড় রাজবাড়ী কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে আটকে আছে প্রায় ২ শতাধিক অপচনশীল পন্যবাহী ট্রাক কে আটকে রাখা হয়েছে। সিরিয়াল অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে সকল যানবাহন ছেড়ে দেয়া হবে।
মাগুরা হতে আসা ট্রাক চালক আ.গনি বলেন, দৌলতদিযা ঘাট মানেই বাড়তি ভোগান্তি। ঘাটে এসে নদীপারের জন্য ঘন্টার পর পর অপেক্ষা করতে হয়। কখনো আবার দুই তিন দিন অপেক্ষায় থাকতে হয় নদী পারের জন্য। এই দুর্ভোগ শেষ হবার নয়।
বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডবিদ্ধউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য মো.জামাল উদ্দিন বলেন, যাত্রীবাহী বাস ও পচনশীল পন্যবাহী ট্রাকগুলো অগ্রধিকারের ভিত্তিতে পারাপার করা হচ্ছে। কিছু অপচনশীল পন্যবাহী ট্রাক সিরিয়ালে আটকা আছে পর্যায়ক্রমে সেগুলো ছেড়ে দেয়া হবে। এই নৌরুটে ছোট বড় মিলে ১৬টি ফেরি চলাচল করছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন