রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদে ১ লাখ ৩৩ হাজার হেক্টর জমির আমনধান ক্ষতিগ্রস্ত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ ডিসেম্বর, ২০২১, ১:০৫ এএম

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে প্রবল বর্ষণে দেশের প্রায় ১ লাখ ৩২ হাজার হেক্টর জমির আমন ধান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১০টি জেলার মধ্যে যশোর অঞ্চলের ছয় জেলার ৯৪ হাজার ৫৩৮ হেক্টর ও বরিশাল অঞ্চলের চার জেলায় ৩৮ হাজার ৪২৯ হেক্টর আবাদি জমির ধান বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সব মিলিয়ে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১০টি জেলায় প্রায় ১ লাখ ৩২ হাজার ৯৬৭ হেক্টর জমিতে আবাদি আমন ধানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
যশোর অঞ্চলে ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে- যশোর, ঝিনাইদহ, মাগুরা, নড়াইল, কুষ্টিয়া ও চুয়াডাঙ্গা। আর বরিশাল অঞ্চলের জেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে- বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি ও পটুয়াখালী। তবে ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে এটিই ক্ষয়ক্ষতির চ‚ড়ান্ত হিসাব নয়। ঘূর্ণিঝড় সৃষ্ট অকাল বর্ষণে আমনের চ‚ড়ান্ত ক্ষয়ক্ষতির হিসাব শিগগিরই নির্ধারণ করা হবে বলে জানিয়েছে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর।
চলতি ২০২১-২০২২ অর্থবছরে আমন মৌসুমে ৫৮ লাখ ৩০ হাজার হেক্টর জমি থেকে প্রায় ১ কোটি ৫০ লাখ ৪৬ হাজার টন চাল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিল সরকার। এর মধ্যে দেশের প্রায় ৫৭ লাখ ৬৩ হাজার ৯০০ হেক্টর জমিতে আমন ধানের আবাদ হয়।
ক্ষতিগ্রস্ত আলুচাষিদের সহায়তার দাবি
ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে আলুর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তাতে আলুচাষিরা সর্বস্বান্ত। দ্রুত সরকারকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ কোল্ড স্টোরেজ অ্যাসোসিয়েশন।
গতকাল সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে তারা বলেন, বর্তমান রবি মৌসুমে দেশের সর্বত্র কৃষকরা জমিতে বীজ-আলু বপন সম্পন্ন করেছে। এমন অবস্থায় ঘ‚র্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে টানা চারদিন বৃষ্টির কারণে ঢাকা, মুন্সিগঞ্জ, কুমিল্লাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে আলুক্ষেতে পানি জমে বীজ-আলু নষ্ট হয়ে গেছে। এমন অবস্থায় কৃষকরা সর্বস্বান্ত ও হতাশাগ্রস্ত। চলতি বছর আলুর উৎপাদন মারাত্মকভাবে ব্যাহত হবে। তাতে কৃষকের পাশাপাশি হিমাগার মালিকরাও সংকটে পড়বেন।
পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে আলুচাষিদের প্রয়োজনীয় সার এবং সেচযন্ত্র সরবরাহ করে প্রয়োজনীয় সহায়তা ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি বাংলাদেশ কোল্ড স্টোরেজ অ্যাসোসিয়েশন দাবি জানিয়েছে। একই সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্তদের প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের জন্য সব ব্যাংককে পরামর্শ প্রদানে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছে সংগঠনটি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন