ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

লক্ষ্মীপুরে কর্মসৃজন প্রকল্প : ভুয়া মাস্টাররোল জমা দিয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

লক্ষ্মীপুর জেলা সংবাদদাতা : লক্ষ্মীপুরে চর রমনীমোহন ইউনিয়নে অতিদরিদ্রদের ৪০ দিনের কর্মসৃজন প্রকল্পের কাজ শ্রমিকের পরিবর্তে এক্সিলিন্ডার (রিকু) মেশিনের সাহায্যে বাস্তাবায়ন করা হচ্ছে। এতে সরকারের আসল উদ্দেশ্য ব্যাহত হচ্ছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। কর্মহীন মৌসুমে অতিদরিদ্র এবং মৌসুমী বেকার শ্রমিকদের স্বল্প মেয়াদী কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচিতে শ্রমিকের পরিবর্তে এক্সিলিন্ডার (রিকু) মেশিন দিয়ে নামমাত্র কাজ করে ভুয়া মাস্টাররোল জমা দিয়ে সব ঠিকঠাক দেখিয়ে প্রকল্পের টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে প্রকল্প সভাপতি ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। প্রতিটি প্রকল্পে ৪০ জন শ্রমিকদের নাম খাতা-কলমে থাকলেও বাস্তবে তার কোন মিল নেই। দায়সারাভাবে এক্সিলিন্ডার (রিকু) মেশিন দিয়ে রাস্তা সংস্কার কাজ করছে সংশ্লিষ্টরা। অভিযোগ রয়েছে অতিদরিদ্রদের ৪০ দিনের কর্মসৃজন প্রকল্পে সমস্ত কর্মসূচিতে চেয়ারম্যান ইউছুফ ছৈয়াল ও ৯ ওয়ার্ডের মেম্বররা তাদের আত্মীয়-স্বজনদের নাম শ্রমিকের তালিকাভুক্ত কারেন। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা যায়, ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরের সরকার পল্লী-উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় সদর উপজেলার ২০নং চর রমনীমোহন ইউনিয়নের নয় ওয়ার্ডে ৯টি রাস্তা পুনঃ সংস্কার করার লক্ষ্যে ৪৫ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। অনিয়ম ও লুটপাটের ফলে সরকারের সময়োপযোগী এসব প্রকল্পের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সংশ্লিষ্ট শ্রমিকসহ পিছিয়ে পড়া বিশাল জনগোষ্ঠী। চর রমনীমোহন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউছুফ ছৈয়ালের কাছে অতিদরিদ্রদের কর্মসৃজন প্রকল্পে শ্রমিকদের কাজে না লাগিয়ে মেশিন ব্যবহার, অনিয়ম ও লুটপাটের বিষয়ে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেনি। তবে এ বিষয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুজ্জামান জানান, মেশিন দিয়ে কাজ করা সম্পূর্ণ অবৈধ, এতে সরকারের আসল উদ্দেশ্য ব্যাহত হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন