বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

ভোট কারচুপির অভিযোগে সড়ক অবরোধ

পুনঃগণনার দাবিতে কমলগঞ্জে মানববন্ধন

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০২ এএম

পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ৫নং কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে ভোট কারচুপির অভিযোগ করে ৩ জন প্রার্থীর সমর্থকরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করে। এ সময় তারা অবিলম্বে ভোট পুণগননার দাবি জানিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা থেকে কমলগঞ্জ-আদমপুর সড়কের নগর এলাকায় প্রায় ২ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করে।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, থানার ওসিসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কোন অভিযোগ থাকলে লিখিতভাবে প্রদান করলে তদন্তক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার আশ্বাস দিলে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়। অবরোধের সময় রাস্তার দু’দিকে বিপুল সংখ্যক যানবাহনে শত শত যাত্রী আটকা পড়ে দুর্ভোগে পড়েন। পরে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে বেশ কিছু সিলমারা ব্যালট দেখানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী মো. শিবির আহমদ বলেন, আমি গত বুধবার অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে জামিরকোণা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোরগ প্রতীক নিয়ে ৫৪২ ভোট প্রাপ্ত হই। নির্বাচনী দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা নিলর্জ্জভাবে ফলাফল পরিবর্তন করে ২য়স্থান অধিকারী ৪৫২ ভোট প্রাপ্ত মো. জাহিদ মিয়াকে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করেন। নির্বাচনী দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের নিলর্জ্জ ও পক্ষপাতদৃষ্টি আচরণের প্রতিবাদ করলে প্রশাসনকে ব্যবহার করে আমার ভোটার ও সমর্থকদের নানাভাবে হুমকি প্রদান করা হয়। নির্বাচনের দিন যথাসময়ে ফলাফল প্রকাশ না করে সময় ক্ষেপন করে উপরের নির্দেশ আসে নাই বলে চারবার ভোট গণনা করা হলে প্রতিবারই মোরগ প্রতীকে মো. শিবির আহমদ সর্ব্বোচ্চ ভোট পান। ভোট গণনার আগেই রেজাল্টশিটে মোরগ প্রতীকের এজেন্টের স্বাক্ষর নিয়ে নেয়ার অভিযোগও করেন তিনি। রাত ১২টায় আইনশৃংখলা বাহিনীর লোকজনসহ নির্বাচনী কর্মকর্তারা সাধারণ সদস্য পদে রেজাল্ট ঘোষণা না করে ব্যালট বাক্স উপজেলা নিয়ে যান এবং সেখানে ২য় স্থান অধিকারী ৪৫২ ভোট প্রাপ্ত মো. জাহিদ মিয়াকে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করা হয়। রাতে কেন্দ্রের পাশে পরিত্যক্ত স্থান থেকে মোরগ প্রতীকের শতাধিক সিলমারা ব্যালট উদ্ধার করা হয়। সাংবাদিকদের কাছে উদ্ধারকৃত ব্যালট দেখিয়ে কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ ও ভোট পুন:গণনা বা পুণ:নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আগামীকাল রোববার রিটার্ণিং অফিসার বরাবরে লিখিত আবেদন জানানো হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী রুপেন্দ্র কুমার সিংহ, মো. আব্দুর রউফ, মো. শিবির আহমদসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জামিরকোণা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং অফিসার ও উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক দিপক চন্দ্র মন্ডল এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এ কেন্দ্রে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ হয়েছে।

কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রশাসনের লোকজন ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আন্দোলনকারীদের লিখিত অভিযোগ জানানোর পরামর্শ দিলে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন