বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

শ্রীনগরে ফেসবুক স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ

মুনীরুল ইসলাম, শ্রীনগর (মুন্সিগঞ্জ) থেকে | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

শ্রীনগরে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়াকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। এঘটনায় একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়েছে। গত রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার ভাগ্যকুল ইউনিয়নের আলামিন এলাকায় ২ দফা সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু ২ গ্রুপের লোকজন থানায় অভিযোগ করতে এসে থানার গেটের সামনে তৃতীয় দফায় বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পরলে পুলিশ ৪জনকে আটক করে।
স্থানীয়রা জানায়, সদ্য ভাগ্যকুল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে জয়ীপ্রার্থী নুরুল আমিন মোড়ল ও তার লোকজন নির্বাচনে পরাজতি প্রার্থী সামাদ মেম্বারের লোকজনকে উদ্দেশ্য করে অনবরত ফেসবুকে স্ট্যাটাস প্রদান করে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২ গ্রুপে উত্তেজনা দেখা দেয়। রবিবার সন্ধায় নরুল আমিন মেম্বার আলোর দিশারী ক্লাবের সামনে তার লোকজন নিয়ে সামাদ মেম্বার গ্রুপের লোকজনের উপর হামলা চালায়। এসময় স্থানীয়দের হস্তক্ষেপে ২ গ্রুপ ওই স্থান ত্যাগ করে। এই ঘটনার ১৫ মিনিট পরে নুরুল আমিন মোড়ল পুনরায় তার লোকজন নিয়ে আলামিন বাজারে উপস্থিত হয়ে ফের সামাদ মেম্বারের লোকজনের উপর হামলা চালায়।এতে আজিবর শেখ (৪২) এর মাথা ফেটে যায়।
এছাড়াও তানিয়া (৩৮), মাসুদ (৩৫)সহ বেশ কয়েকজন অহত হয়। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসার পথে তারা বাঁধার মুখে দোহার উপজেলায় গিয়ে চিকিৎসা নেয়। পরে নুরুল আমিন মেম্বারের লোকজন আক্রোশ থেকে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার বৈরি সাক্ষী আবুল হোসেনের ছেলে রফিকের মোটরসাইকেলটি ভেঙে গুড়িয়ে দেয়।
অপরদিকে নরুল আমিন মেম্বার এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, সামাদ মেম্বারের লোকজনই তাকেসহ তার লোকজনকে মারধর করেছে। তিনি দাবি করেন তার পক্ষের কামাল, আতিক ইসলাম, আরমান, বাবু, রবিনসহ বেশ কয়েকজনকে মারধর করে।
রাত সাড়ে আটটার দিকে ২ গ্রুপ থানায় অভিযোগ দিতে এসে থানার গেটে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরলে পুলিশ নুরুল আমিন মেম্বার গ্রুপের ৩ জন ও সামাদ মেম্বার গ্রুপের ১জনকে আটক করে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন