রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৮ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

ছাতকে ফাঁস দিয়ে যুবতীর আত্মহত্যা

প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ছাতক (সুনামগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা

সুনামগঞ্জের ছাতকে গলায় ফাঁস দিয়ে অষ্টাদশী এক যুবতী আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার রাতে কালারুকা ইউপির খাইরগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাতেই পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছে। জানা যায়, খাইরগাঁও গ্রামের আফরোজ আলীর মেয়ে শিউলী বেগম (১৮) ঘটনার সময় গোয়াল ঘরের পেছনের একটি আমগাছের সাথে গলার ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজির পর অবশেষে গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো দেখে পুলিশে খবর দেন। গতকাল বুধবার ময়নাতদন্ত শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে তার মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।
হত্যা মামলায় ৮ জন জেলহাজতে
ছাতকের জাউয়া কলেজের মেধাবী ছাত্র রিমন হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ ৮ জনকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার বিজ্ঞ আদালত তাদেরকে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন। জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ খুরমা ইউপির সেনপুর গ্রামের রইছ উদ্দিনের পুত্র জাউয়া কলেজের মেধাবী ছাত্র রিমন আহমদকে ২৩ আগস্ট নৃসংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। গত মঙ্গলবার হত্যাকা-ে জড়িত ৮ জন আসামি সুনামগঞ্জ আমলগ্রহণকারী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো. দেলোয়ার হোসেনের আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন। এরা হলো- সেনুপুর গ্রামের আবদুস ছুবহান, আবদুল কাহার ও আবদুস সালাম, ফারুক আহমদ ওরফে কালা, মাহিজুর রহমান ওরফে জোয়াদ আলী, জামিল আহমদ ওরফে কুটি, সফিক আলী, ফারুক মিয়া। এদের বিরুদ্ধে রিমন হত্যাকা-সহ আরো একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন