সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ০৪ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, আটক এক

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৭:৪৯ পিএম

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে এক ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানকে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকালের দিকে উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সরবেশ আলীর নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটলে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় ওই ইউপি চেয়ারম্যানকে উদ্ধার করে রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় জড়িত পাশের গ্রাম নয়াপাড়ার মৃত কদম আলীর ছেলে তারা মিয়া (৩৪) নামের এক যুবককে গণধোলাই দিয়ে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছেন এলাকাবাসী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রোববার সকালে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে যাদুরচর ইউনিয়নের কোমরভাঙ্গী নয়াপাড়া গ্রামের কদম আলী ছেলে তারা মিয়া পূর্ব পরিকল্পিতভাবে যাদুরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সরবেশ আলীকে ধারালো চাইনিজ কুড়াল দিয়ে এলোপাথারী কোপায়। এসময় চাইনিজ কুড়ালের আঘাতে রক্তাক্ত জখম হন ওই ইউপি চেয়ারম্যান। পরে তার আত্মচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করেন এবং ঘটনায় জড়িত যুবক তারা মিয়াকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশকে খবর দেন এলাকাবাসী।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই যুবককে আটক করেন এবং ঘটনাস্থল থেকে একটি ধারালো চাইনিজ কুড়াল ও একটি ছুড়ি জব্দ করে পুলিশ। হামলায় আহত যাদুরচর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সরবেশ আলী বলেন, আজ সকালে ওই যুবক চাইনিজ কুড়াল নিয়ে আমার বাড়িতে এসে আমার ওপর আকস্মিকভাবে হামলা চালায়। এ সময় আমার বামহাতের তালু কেটে যায়। পরে আত্মচিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান।

অভিযুক্ত যুবক তারা মিয়া বলেন, ‘আমি তাকে মারতে যাইনি। শুধু ভয় দেখাতে গিয়েছিলাম। এ সময় তার লোকজন আমাকে ধরে বেদম মারপিট করেন।
তিনি আরও বলেন, চেয়ারম্যান আমার আপন চাচাতো ভাই। তার কাছে জমি পাই। সেই জমি বের করে দেওয়ার কথা বলে দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে আমাকে ঘুরাচ্ছেন।’

রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক মুক্তারুল ইসলাম সেলিম বলেন, ওই চেয়ারম্যানের বাম হাতে চাইনিজ কুড়ালের আঘাতের ফলে জখম হয়েছে। তার হাতে সাতটি সেলাই দেওয়া হয়েছে বলেও জানান ওই চিকিৎসক।

রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ তারা মিয়া নামের এক যুবককে আটক করে এবং ঘটনাস্থল থেকে একটি ধারালো চাইনিজ কুড়াল ও একটি ছুড়ি জব্দ করে। এ ঘটনায় চেয়ারম্যান সরবেশ আলী বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। বর্তমান ওই যুবককে আটক করে পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps