শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

চিকিৎসককে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তিন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে থানায় জিডি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ১২:২১ এএম

সরকারি দফতরে এক চিকিৎসককে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত এবং হত্যার হুমিক দেয়ার অভিযোগে স্বাস্থ্য অধিদফতরের তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বনানী থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার এই সাধারণ ডায়েরি করেন এমিনেন্স এসোসিয়েটস ফর সোশাল ডেভেলপমেন্ট’র সিনিয়র প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আরিফ হোসেন। এতে উল্লেখ করা হয়েছে, মঙ্গলবার দুপুরে এমিনেন্স’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. শামীম তালুকদার এবং একই প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান মহাখালীতে অবস্থিত স্বাস্থ্য অধিদফতরের পুরাতন ভবনের এনসিডিসি (নন কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল) কর্মসূচির লাইন ডিরেক্টর প্রফেসর ডা. রোবেদ আমিনের কার্যালয়ে যান। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত জাতীয় অসংক্রামক রোগ সম্মেলন পরবর্তী সামগ্রিক মূল্যায়ন ও আর্থিক হিসাব দিতেই এই দু’জন সেখানে যান। এসময় সেখানে অধিদফতরের এনসিডিসি শাখার ডিপিএম-৫ ডা. নুসাইর চৌধুরী ও ডিপিএম-৬ ডা. রাহাত ইকবাল তাদেরকে কেন সম্মানীভাতা দেয়া হয়নি এই অভিযোগে ওই দু’জনকে নাজেহাল করতে থাকেন। এমনকি তাদের অনুমতি ছাড়া বিশিষ্ট চিকিৎসকদের কেন সম্মাননা দেয়া হয়েছে এবং আগামী বছরের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হলো এ জন্য অশোভন আচরণও করেন। এর এক পর্যায়ে এই দুই চিকিৎসক কর্মকর্তার সঙ্গে সেখানে উপস্থিত জাতীয় এইডস/এসটিডি কন্ট্রোল কর্মসূচির মেডিকেল অফিসার ডা. ফাইজা মুকাররামা ডা. শামীম তালুকদারকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করনে। এমনকি ধাক্কা দিয়ে অফিস কক্ষ থেকে বের করে দেন। এসময় তার সঙ্গে থাকা মোস্তাফিজুর রহমান বাঁধা দিতে গেলে এই তিন কর্মকর্তা মিলে তাকেও শারীরিকভাবে আঘাত করেন। এমনকি এরপর কখনোই স্বাস্থ্য অধিদফতরে দেখলে তাদের পিটিয়ে হত্যা করার হুমকি দেন।
এ বিষয়ে অবগত করতে ওই দিনই এমিনেন্স এসোসিয়েটস’র পক্ষ থেকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে একটি চিঠি দেয়া হয়েছে। চিঠিতে ঘটনার সম্পূর্ণ বিবরণ দিয়ে অধিদফতরের ওই তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানানো হয়েছে।
ঘটনার বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের লাইন ডিরেক্টর (এনসিডিসি) প্রফেসর ডা. রোবেদ আমিন ইনকিলাবকে বলেন, মেডিকেল অফিসারদের সঙ্গে সম্মেলনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কিছুটা মনোমালিন্য হয়েছে, এর বেশি কিছু নয়। তবে এ নিয়ে যা ঘটেছে পুরো বিষয়টি দুঃখজনক।
এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন) প্রফেসর ডা. শামিউল ইসলাম বলেন, এ ধরনের একটি অভিযোগ আমাদের নজরে এসেছে। এক্ষেত্রে আমরা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন