বৃহস্পিতবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ০৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

মাস্ক ছাড়া চলাফেরা নয় শঙ্কা নতুন ভ্যারিয়েন্টের

অনলাইন বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদফতর

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০২২, ১২:০০ এএম

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের অভিতম নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নীচে এলে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে বলা যায়। সে হিসেবে দেশে বর্তমানে করোনা নিয়ন্ত্রণে এবং পরিস্থিতি স্থিতিশীল রয়েছে। তা সত্ত্বেও সবাইকে মাস্ক পরতে হবে, মেনে চলতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। এখনই মাস্ক খুলে ফেলার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

গতকাল রোববার কেরোনা পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এ সতর্কবার্তা দেন অধিদফতরের অসংক্রামক রোগ বিভাগের প্রধান ও অধিদফতরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিন। বুলেটিনে বলা হয়, কোভিড পরিস্থিতি বর্তমানে অনেকটা স্টেবল (স্বাভাবিক) পর্যায়ের কাছাকাছি নিয়ে আসতে পেরেছি। গত সাত দিনের পরিস্থিতি তুলে ধরে জানানো হয়, গত ২৭ ফেব্রুয়ারিতে ৪ শতাংশের মতো শনাক্তের হার ছিল। কিন্তু ২৮ ফেব্রুয়ারিতে ৩ দশমিক ৬৫ শতাংশ, ধীরে ধীরে তা ৩ দশমিক ৩৫ শতাংশ হয়েছে। এভাবে কমতে কমতে গত শনিবার শনাক্তের হার ছিল ২ দশমিক ১১ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিন বলেন, এই প্রথম চলতি বছরে ২ থেকে ৩ শতাংশের ঘরে রয়েছে শনাক্তের হার। এভাবে যদি সংক্রমণ কমতে থাকে তাহলে অচিরেই আমরা ২ শতাংশের নিচে চলে আসতে সক্ষম হবো। তবে করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। দীর্ঘদিন আমাদের এগুলো মেনে চলতে হবে। দেশে মাস্ক খুলে চলাফেরা করার মতো পরিস্থিতি হয়নি জানিয়ে অধ্যাপক রোবেদ আমিন বলেন, আমরা দেখেছি, ইতোমধ্যে অনেকেই ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন। তারা ভাবছেন, এর প্রভাব কমে গেছে। রোগী শনাক্ত এবং নমুনা পরীক্ষা কমে গেছে। এজন্য অনেকেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছেন না বা মাস্ক খুলে ফেলার পেছনে যুক্তি দিচ্ছেন। কিন্তু আমাদের খেয়াল করতে হবে, গত ৫ মার্চ ১৩ জন মানুষের মৃত্যু এবং ৩৬২ জন শনাক্ত হবার খবর দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

তিনি বলেন, কিন্তু ভাইরাসের মিউটেশন হচ্ছে। ভাইরাসের এখনো ইভোল্যুশন হচ্ছে। আবারও নতুন করে কোনও ভ্যারিয়েন্ট আসবে কিনা সে শঙ্কাটা থেকেই যাচ্ছে। ওমিক্রনের যেসব নতুন নতুন উপধরন বিএ.২ বা অন্য কিছু, তা চলে আসার আশঙ্কা থাকবে। আমাদের যেসব রিস্কি গ্রুপ আছে ডায়াবেটিস, হাইপার টেনশন, ক্যানসারের রোগী তাদের ক্ষেত্রে ওমিক্রনও সিরিয়াস হতে পারে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ৭ মার্চ, ২০২২, ১২:২৪ পিএম says : 0
ইউকে তো এনআইডি কার্ড নাই বাংলাদেশ এনআইডি কার্ড আছে কত শত কোটি অন্যায় হচ্ছে এনআইডি কার্ড দিয়ে তাদেরকে ধরা হয় না ইউনিভার্সিটির কথাই ধরা হোক না কেন যারা আওয়ামী লীগের ছেলেপিলে মানুষের পরে কিভাবে অত্যাচার করছে তাদের তো কখনো এনআইডি কার্ড দিয়ে ধরা হয় না গেস্টরুমে নিয়ে যে তাদেরকে টর্চার করা হয় আওমীলীগ না করার জন্য এটা কি আমি লীগের বাপের দেশ নাকি
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন