ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

হতদরিদ্রের চাল আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির তালিকা প্রণয়নে অনিয়ম ও জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে। জালিয়াতির মাধ্যমে দুস্থদের জন্য ১০ টাকার বরাদ্দের চাল তুলে নিচ্ছে প্রভাবশালীরা। এ অবস্থায় বিষয়টি নিয়ে সুলতান উদ্দিন নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি গতকাল বুধবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের গোলাম মোস্তফা মেম্বার তার ওয়ার্ডে স্কুলছাত্রদের হতদরিদ্রদের তালিকায় নাম দিয়ে চাল আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। তালিকায় হাঁসের আলগি নি¤œ মাধ্যমিক বিদ্যায়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর স্কুলছাত্র রিয়াদ মিয়ার বয়স দেখানো হয়েছে ৪০ বছর। পেশা হিসেবে দিনমজুর দেখানো হলেও রিয়াদ ষষ্ঠ শ্রেণীর স্কুল ছাত্র। রিয়াদকে তার শ্রেণিকক্ষে গিয়ে পাওয়া যায়। এদিকে একই ওয়ার্ডের মরিচারচর উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর স্কুলছাত্র রিমি আক্তার ও ফাহিমকে ১০ টাকার চালের তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। তালিকায় রিমির বয়স দেখানো হয়েছে ৮২ বছর ও ফাহিমের বয়স দেখানো হয়েছে ৮০ বছর। ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর দিয়ে তালিকাভুক্ত করা হয় স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের। বিদ্যালয়ে গিয়ে শ্রেণিকক্ষে পাওয়া যায় রিমি ও ফাহিমকে। মরিচারচর নামাপাড়া গ্রামের আবদুল হেকিমসহ চারজন মৃত ব্যক্তির নাম দিয়ে চাল উত্তোলন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য গোলাম মোস্তফা বলেন, স্কুলছাত্রদের তালিকাভুক্ত ভুলবশত করেছেন। তালিকাভুক্ত করতে ভুয়া আইডি ব্যবহার করা হয়। উচাখিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম বলেন, তালিকা প্রস্তুতের সময় তিনি দেশের বাইরে ছিলেন। এ অবস্থায় তালিকা প্রস্তুতে কিছু এদিক সেদিক হয়েছে। বিষয়গুলো সংশোধন করা হচ্ছে। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ আলাউদ্দিন বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে তালিকা সংশোধন করে স্কুলছাত্রদের নাম বাদ দেয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীব কুমার সরকার বলেন, অভিযোগ পেয়ে বিষয়টি নিয়ে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য খাদ্য নিয়ন্ত্রককে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন