সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইউক্রেনের সেনার অপরাধের প্রমাণ দিলো রাশিয়া

ডনবাস সুরক্ষিত যুদ্ধবন্দির মর্যাদা পাচ্ছে আত্মসমর্পণকারী যোদ্ধারা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

ব্রিটিশ মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স শুক্রবার বলেছে যে, রাশিয়া শেষ পর্যন্ত দক্ষিণের বন্দর শহর মারিউপোলকে সুরক্ষিত করার পরে ডনবাসে তাদের কার্যক্রম আরও জোরদার করতে পারে। এদিকে, রাশিয়ার মানবাধিকার কাউন্সিল ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর দ্বার সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের প্রমাণ উন্মোচন করেছে। অন্যদিকে, রাশিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মারিউপোলের আজোভস্টাল প্ল্যান্ট থেকে আটক করা ইউক্রেনীয় বন্দীদের নিয়ে একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে। তাদেরকে বর্তমানে ডোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিকের ইয়েলেনোভকা বন্দোবস্তে রাখা রয়েছে।

মারিউপোল বিজয় ইউক্রেন অভিযানে রাশিয়ার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। অঞ্চলটি, একটি শিল্প পাওয়ার হাউস, ডোনেৎস্ক এবং লুহানস্ক অঞ্চলের সাথে যুক্ত হয়েছে, যা মস্কো বিচ্ছিন্নতাবাদীদের পক্ষে দাবি করে। পুতিন ইউক্রেনের আক্রমণকে ফ্যাসিবাদীদের দেশকে মুক্ত করার জন্য একটি ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ বলে অভিহিত করেছেন। এদিকে, নাগরিক সমাজ ও মানবাধিকারের উন্নয়নের জন্য রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট কাউন্সিল ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী এবং বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে জাতীয় ব্যাটালিয়ন দ্বারা সংঘটিত অপরাধ সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সংস্থা এবং বিদেশী রাজনীতিবিদদের কাছে অতিরিক্ত তথ্য-উপকরণ পাঠিয়েছে, নথিগুলি জোর দেয় যে, ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী সন্ত্রাসী পদ্ধতি ব্যবহার করে।
কাউন্সিলের মানবাধিকারের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি ডনবাস এবং ইউক্রেনে বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে ইউক্রেনীয় সশস্ত্র বাহিনী এবং জাতীয় ব্যাটালিয়নের অপরাধের বিষয়ে নতুন তথ্য প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছে, কাউন্সিলের টেলিগ্রাম চ্যানেল বৃহস্পতিবার রিপোর্ট করেছে। কাউন্সিল এই বিষয়ে তার পঞ্চম সংকলন বিদেশে পাঠানো শুরু করেছে, রিপোর্টে বলা হয়েছে। বিশেষ করে, আন্তর্জাতিক সংস্থা, বিদেশী দূতাবাস এবং ব্যক্তিগতভাবে রাজনীতিবিদ, কূটনীতিক, সাংবাদিক এবং জনসাধারণের কাছে পাঠানো হয়।

‘যুদ্ধের সন্ত্রাসী পদ্ধতিগুলি ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর জন্য আদর্শ হয়ে উঠেছে। উদাহরণস্বরূপ, ২০২২ সালের মে মাসের প্রথম দিকে, মারিউপোলে আলোচনার সময়, আজভ ব্যাটালিয়ন যোদ্ধারা এমনকি বেসামরিক নাগরিকদের বিনিময়ের প্রস্তাবও দিয়েছিল যাদেরকে তারা খাদ্য ও ওষুধের জন্য জিম্মি করে। আমরা আবারও ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষের উপর আন্তর্জাতিক চাপের আহ্বান জানাই যাতে এই স্পষ্ট মানবাধিকার লঙ্ঘন বন্ধ করা যায়,’ রাশিয়ান প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা এবং কাউন্সিলের প্রধান ভ্যালেরি ফাদেয়েভ বলেছেন।

রিপোর্ট করা হয় যে, পাঠানো উপকরণগুলির মধ্যে অবসরপ্রাপ্ত ফরাসি সামরিক অফিসার অ্যাড্রিয়েন বোকের ইউক্রেনীয় সামরিক বাহিনীর যুদ্ধাপরাধ সম্পর্কে সাক্ষ্য রয়েছে। ‘এটা আমাকে হতবাক করে যে ইউরোপ নব্য-নাৎসি প্রতীক পরিধানকারী যোদ্ধাদের অস্ত্র সরবরাহ করছে,’ কাউন্সিল বোকে উদ্ধৃত করেছে, যিনি একজন মানবিক কর্মী হিসাবে সংঘাতপূর্ণ অঞ্চলে ছিলেন। কাউন্সিলের মতে, ফরাসি নাগরিক ইউক্রেনের বুচা শহরে পশ্চিমাদের দ্বারা রাশিয়াকে দায়ী করা অপরাধগুলিকেও অস্বীকার করেছেন। ‘সেখানে যে মৃতদেহ ছিল যেগুলি বিশেষ করে ফটোশুটের জন্য আনা হয়েছিল,’ বোকে বলেছিলেন।

কাউন্সিল দ্বারা প্রস্তুত উপকরণ সুপরিচিত প্রতারণা প্রকাশ করে। উদাহরণস্বরূপ, কাউন্সিলের মতে, ইউক্রেনীয় টেলিগ্রাম চ্যানেলগুলি থেকে ‘খারকিভের বেসমেন্টে’ শিশুদের ছবিগুলি আসলে ডনেৎস্কের একটি বোমা আশ্রয়ে নেয়া হয়েছিল, যেখানে বৃদ্ধ এবং শিশুরা ইউক্রেনীয় সশস্ত্র বাহিনীর কাছ থেকে লুকিয়ে ছিল।

যুদ্ধবন্দির মর্যাদা পাচ্ছে আত্মসমর্পণকারী যোদ্ধারা : রাশিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মারিউপোলের আজোভস্টাল প্ল্যান্ট থেকে আটক করা ইউক্রেনীয় বন্দীদের নিয়ে একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে। তাদেরকে বর্তমানে ডোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিকের ইয়েলেনোভকা বন্দোবস্তে রাখা রয়েছে। প্রকাশিত ফুটেজ অনুসারে, যুদ্ধবন্দিদের প্রত্যেকের জন্য ব্যক্তিগত বিছানা সহ স্থায়ী ভবনে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ক্যামেরায় কথা বলা যুদ্ধবন্দিদের মতে, তাদের বিছানা এবং নিয়মিত মানের খাবার সরবরাহ করা হয়েছিল। প্রয়োজনে প্রত্যেককে যোগ্য চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করা হয় এবং যথাযথ মনোভাব সহকারে গ্রহণ করা হয়।

‘আমি কী আশা করব তা জানতাম না। আমরা যা পেয়েছি তা আমাদের প্রত্যাশার চেয়ে ভাল। এটা ঠিক আছে, সবকিছু ঠিক আছে। সবাই অনুগত, পর্যাপ্ত, কেউ আমাদের অপমান করে না, কেউ ব্যক্তিগত আক্রমণ করে না। তারা আমার সহকর্মীকে সাহায্য করেছে; আমাকে আশ্বস্ত করা হয়েছিল যে সমস্ত গুরুতর আহতদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে এবং তাদের ক্ষতগুলির চিকিৎসা করা হয়েছে। আমি আশা করি, তারা আরও চিকিৎসা পাবে,’ বলেছেন ধৃত লেফটেন্যান্ট পদমর্যাদার চিকিৎসক।

এর আগে বৃহস্পতিবার, রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইগর কোনাশেনকভ ঘোষণা করেছিলেন যে, গত ২৪ ঘন্টায়, ৭৭১ আজভ জাতীয়তাবাদী ব্যাটালিয়ন জঙ্গি আজভস্টালে আত্মসমর্পণ করেছে। ১৬ মে থেকে এ পর্যন্ত ৮০ জন আহতসহ মোট ১ হাজার ৭৩০ জন জঙ্গি আত্মসমর্পণ করেছে। তিনি বলেন, নোভোয়াজভস্ক এবং ডোনেৎস্কের চিকিৎসা সুবিধায় হাসপাতালে চিকিৎসার প্রয়োজন আছে এমন প্রত্যেকেই সহায়তা পান। সূত্র : তাস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
হরেশ্বর বাবু ২১ মে, ২০২২, ৩:৩৩ এএম says : 0
যুদ্ধ কখনো শান্তির পথ হয়ে আসে না। যুদ্ধ আসে নিরপরাধ নিরীহ মানুষকে হত্যা আর দেশ সুন্দর পৃথিবী কি ধ্বংস করার জন্য। তাই আমি যুদ্ধ চাইনা যুদ্ধ বন্ধ করে সকলে মিলেমিশে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলে মিলেমিশে থাকতে পারলেই পৃথিবী হবে সুন্দর ও মধুময় আনন্দময়।
Total Reply(0)
Tawsif ২১ মে, ২০২২, ৩:৩৩ এএম says : 0
আল্লাহ না করুক" বিশ্বের পরাশক্তিরা যা শুরু করেছে ৩য় বিশ্বযুদ্ধ না শুরু হয়ে যায়
Total Reply(0)
Md Ali Azgor ২১ মে, ২০২২, ৩:৩৩ এএম says : 0
ইউক্রেন এর দুইশাতাধিক সৈনিক " রাশিয়ার সৈন্যদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে, তাদের বন্দি করা হয়েছে"
Total Reply(0)
Shopon Rahman ২১ মে, ২০২২, ৩:৩৩ এএম says : 0
ওদের বিরুদ্ধে নাৎসী মতবাদ ধারণের যথেষ্ট প্রমাণাদি রয়েছে ,রাশিয়া যদি সেই অভিযোগ তুলে তবে পশ্চিমাদের মুখে "চুন কালি' পড়বে তাদেরকে প্রতিরোধকারী বানিয়ে মদত দেবার কারনে এটা নিশ্চিত
Total Reply(0)
Munia Afroz Jerin ২১ মে, ২০২২, ৩:৩৪ এএম says : 0
পশ্চিমা মিডিয়া রাশিয়ার বিরুদ্ধে তথ্য সন্ত্রাস চালাচ্ছে। পরাজয়কে বলছে রক্ষা করার চেষ্টা আর রাশিয়ার কৌশলকে বলছে পরাজয়।
Total Reply(0)
Mdmamun Howladar ২১ মে, ২০২২, ৩:৩৪ এএম says : 0
ইউক্রেন আত্মসমর্থন করলে আজকের এই পরিণতি হতোনা পশ্চিমারা ঢোল বাজাচ্ছে আর ইউক্রেন নাচতেছে হঠাৎ করে কারেন্ট চলে গেলে যা হয়
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps