রোববার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ০৬ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

সারা বাংলার খবর

ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ৫ ডাকাত গ্রেফতার

মুরাদনগর (কুমিল্লা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০২২, ৬:৫২ পিএম

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন রামচন্দ্রপুর উওর ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশের একটি দল মুরাদনগর থেকে রামচন্দ্রপুর সড়কের উওর বাখরাবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ পাঁচ ডাকাতকে আটক করে বাঙ্গরা বাজার থানা পুলিশ।
এ সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে,আটককৃতরা হলো- উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন রামচন্দ্রপুর (উওর) ইউনিয়নের আমিননগর এলাকার মোমেন মিয়ার ছেলে মোঃ সাকিব মিয়া(২২), উত্তর বাখরাবাদ এলাকার মৃত কামাল মিয়ার ছেলে বাবু মিয়া(২৭), একই এলাকার মৃত আক্কল মিয়ার ছেলে ময়নুল হোসেন আমান(২৯), বি- চাপিতলা এলাকার মৃত বাবুল মিয়া ওরফে বাবর মিয়ার ছেলে কাউছার মিয়া(৩১), উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের মোচাগড়া বাজার সংলগ্ন জাঙ্গাল এলাকার কবির হোসেনের ছেলে সুইফার রুবেল(২৮)।
পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞাতনামা ৬/৭ জন পালিয়ে যায়।
বাঙ্গরা বাজার থানার এস আই উমর ফারুক বলেন,বৃহস্পতিবার রাতে আটক হওয়া ডাকাতেরা মুরাদনগর থেকে রামচন্দ্রপুর সড়কের উওর বাখরাবাদ এলাকার সড়কের আশেপাশে অবস্থান করছিল। এর আগে স্থানীয়রা তাদের গতিবিধি দেখে সন্দেহ করে। পুলিশকে আগে থেকে বিষয়টি তারা জানিয়ে রাখে। রাত সোয়া দুই টার দিকে পুলিশ তাদের সন্দেহজনক ঘোরাফেরা দেখে সেখানে অবস্থানের কারণ জানতে চায়। কিন্তু তারা কোন সধউত্তর দিতে পারেনি।
পরে তাদের সকলের দেহ তল্লাশী করে একটি তালা কাটার মেশিন (কাটার), একটি কাঠের হাতলযুক্ত ছুরি, একটি লোহার হাতলযুক্ত দামা, একটি লোহার পাইপ, একটি প্লাষ্টিকের হাতলযুক্ত লোহার পাইপ, একটি দুই ছিদ্র বিশিষ্ট লোহার পাইপ উদ্ধার করে। আটকের পর রাতে পুলিশ বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে বাঙ্গরা বাজার থানায় ডাকাতির প্রস্তুতির মামলা দায়ের করে।
বাঙ্গরা বাজার থানার অফিসার ইনচার্জ রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, রাতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। প্রত্যেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ডাকাতি ও চুরিসহ একাধিক মামলা রয়েছে। পলাতক আসামী উওর বাখরাবাদ এলাকার বাদশা (৩২) ও শহিদুল (২৫) সহ অন‍্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। শুক্রবার তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন