মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

একাকীত্বে ভুগছেন কিম জং উন!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২৩, ৭:২৩ পিএম

তার দেশকে সমীহ করে গোটা বিশ্ব। দেশের ভেতরেও তার নির্দেশ অমান্য করলে জোটে চরম শাস্তি। সেই কিম জং উন নাকি সারাদিন কান্নাকাটি করছেন! মনের দুঃখ ভুলতে রাতদিন মদ্যপান করছেন উত্তর কোরিয়ার দাপুটে একনায়ক। শুধু তাই নয়, অসুস্থও হয়ে পড়েছেন তিনি। কেবলই তার মনে হচ্ছে, আর বেশিদিন বাঁচবেন না। সব মিলিয়ে কাবু হয়ে পড়েছেন কিম জং উন। লোকচক্ষুর আড়ালেই দিন কাটছে তার। সাম্প্রতিক একটি রিপোর্টে এমন দাবি করা হয়েছে। বলা হচ্ছে, চিকিৎসকদের কড়া পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি।

ঠিক কী অসুখে ভুগছেন কিম? রিপোর্টে বলা হয়েছে, মিড লাইফ ক্রাইসিসে ভুগছেন উত্তর কোরিয়ার একনায়ক। চলতি সপ্তাহেই ৪০ তম জন্মদিন পালন করেছেন তিনি। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ বোধ করছেন কিম। তাছাড়া প্রাণহানির আশঙ্কায়ও রয়েছে। সব মিলিয়ে প্রবল মানসিক চাপের মধ্যে রয়েছেন তিনি। তাই দুশ্চিন্তা কাটাতে আকন্ঠ মদ্যপান করছেন কিম জং উন। অবিলম্বে মদ্যপান বন্ধ করে শরীরচর্চা করতে পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। কিন্তু তাদের কথা উড়িয়ে দিয়ে নিজের মতোই চলছেন দোর্দণ্ডপ্রতাপ নেতা।

উত্তর কোরিয়ার এক ডাক্তার জানিয়েছেন, ‘প্রায় ৪০ বছর বয়স হয়ে গিয়েছে কিমের। তাই নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত হয়ে পড়ছেন। সেই সঙ্গে নিরাপত্তার সংক্রান্ত কারণেও উদ্বেগ বাড়ছে কিমের। শোনা যাচ্ছে, একেবারে একা হয়ে পড়েছেন তিনি। প্রচুর মদ্যপান করে কান্নাকাটি করছেন কিম।’ মূলত মদ্যপানের জেরেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন কিম, এমনটাই মনে করছেন চিকিৎসকরা। তার অসুস্থতার খবর বাইরে প্রকাশ হয়ে পড়ছে বলেও আশঙ্কিত কিম। সেই জন্যই দেশের বাইরে গেলে নিজের জন্য বিশেষ শৌচাগারের ব্যবস্থা করছেন কিম, যেন তার মল পরীক্ষা করে অসুস্থতার খবর জানতে না পারে অন্য দেশের গুপ্তচররা।

৬৯ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল কিমের বাবা দ্বিতীয় কিম জংয়ের। ২০১১ সালে তার মৃত্যু হয়। সেই কারণেই কিমের মনে হচ্ছে, একইভাবে কম বয়সে মৃত্যু হবে তারও। প্রসঙ্গত, বাবার মৃত্যুর পরে উত্তর কোরিয়ার সর্বেসর্বা হয়ে উঠেছিলেন কিম। সেই রীতি মেনেই নিজের মেয়েকে দেশের সর্বোচ্চ পদের জন্য প্রস্তুত করছেন তিনি। একটি ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপনের অনুষ্ঠানে মেয়েকে প্রথমবার প্রকাশ্যে এনেছিলেন কিম। তারপরেই জল্পনা শুরু হয়, এই কিশোরীই কি দেশটির ভবিষ্যৎ প্রেসিডেন্ট? সূত্র: ওয়ানইন্ডিয়া।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন